,


সংবাদ শিরোনাম:
«» সেই সেফুদার বিরুদ্ধে ডিজিটাল আইনে মামলা, তদন্তে কাউন্টার টেরোরিজম «» শ্রীলঙ্কায় হামলার দায় স্বীকার করলো আইএস। «» সুনামগঞ্জে জেলা প্রশাসনের সহযোগিতায় এক মেধাবী ছাত্রের শারিরীক অসুস্থতার চিকিৎসার জন্য সারে ৫ লক্ষ টাকার অনুদানের চেক হস্তান্তর «» সামাজিক ও মানবিক কাজে বিশেষ অবদান রাখায় সম্মাননা পেলো শাকপুর ইউনিয়ন অনলাইন ব্লাড ব্যাংক «» ঢাকায় মানববন্ধনে বিচার দাবী ইটভাটার শ্রমিক পুড়িয়ে হত্যা গোপালগঞ্জে «» উত্তরা রিক্সা মালিক ঐক্য পরিষদের প্লেট বানিজ্যর শাসন-পুলিশের হয়রানী বন্ধে চাদাবাজী? «» কুমিল্লায় জাতীয় স্বাস্থ্য সেবা সপ্তাহের র‌্যালি ও আলোচনা সভা পালন «» গোপালগঞ্জে ইমদাদ হত্যার প্রতিবাদে এবং মাদক ও অবৈধ ইটভাটার পরিবেশ দুষনের বিরুদ্ধে মানববন্ধন কারীদের হুমকির অভিযোগ «» লন্ডনে অনুষ্ঠিত হল ভৈরববাসীর মিলন মেলা «» বরুড়া উপজেলাকে কুমিল্লা জেলায় রেখে কুমিল্লা বিভাগ ঘোষণা করার দাবিতে মানববন্ধন ও গণস্বাক্ষর কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়েছে।

ইবিতে আত্মহত্যা প্রবনতা,প্রতিকার ও প্রতিরোধ শীর্ষক সেমিনার 

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) অরাজনৈতিক ও সেচ্ছাসেবী সংগঠন তারুণ্যের উদ্যোগে বুধবার (২০ মার্চ) বীরশ্রেষ্ঠ হামিদুর রহমান মিলনায়তনে আত্মহত্যা প্রবনতা,প্রতিকার ও প্রতিরোধ কল্পে দিনব্যাপী এক সেমিনার অনুষ্ঠিত হয়।
“অবারিত সম্ভবনা নিয়ে জাগ্রত তারুণ্য” তারুণ্যের এই স্লোগানকে সামনে রেখে সেমিনারের উপস্থাপনায় ছিলেন তারুন্য ইবি শাখার সদস্য-সচিব সাদিয়া আফরিন খান।
অনুষ্ঠিত সেমিনারে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) উপাচার্য প্রফেসর ড. হারুন উর রশীদ আসকারী,বিশেষ অতিথি ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ উপাচার্য প্রফেসর ড. মোহাম্মদ শাহীনুর রহমান শাহীন,ট্রেজারার প্রফেসর ড. সেলিম ত্বোহা,তারুণ্যের সভাপতি আরমান রেজা জয় এবং সেমিনারের রিসোর্স পার্সন রাজশাহী মেডিকেল কলেজের মনোরোগ বিভাগের চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. মামুন হোসাইন।
সেমিনারের শুরুতে তারুণ্য লাইব্রেরির উদ্ভোদন করেন ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য প্রফেসর ড. হারুনর উর রশীদ আসকারী।
সেমিনারে আত্মহত্যার উপর আলোকপাত করার সময় ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক রশীদ আসকারী বলেন,”দোলনা থেকে কবর পর্যন্ত এক সমুদ্র বাধা পেরিয়ে আমাদেরকে জীবনযুদ্ধে বেঁচে থাকতে হয়, সামনে এগিয়ে যেতে হয় এজন্য  কাপুরুষিত আত্মহত্যার থেকে বিরোচিত মৃত্যুই একান্ত কাম্য। তিনি বলেন, পৃথিবীতে সম্ভাবনার একটি জানালা বন্ধ হলেই হতাশ হওয়া যাবে না, অপেক্ষা করতে হবে আগামীর জন্য, দেখবে সম্ভবনার হাজারো দরজা খুলে গেছে তোমার জন্য।আদিম মানুষ পাহাড়ের গুহায় বাস করেও বেঁচে থাকার একশত একটি পথ বের করেছিল কিন্তু,আত্মহত্যার কোন পথ তারা বের করেনি।তাই আমাদেরকেও বাঁচতে হবে আর জীবনকে উৎসর্গ করতে হবে দেশের জন্য।যেমন জীবন উৎসর্গ করেছিল স্বাধীনতা সংগ্রামের বীর শহীদেরা।”
সেমিনারে আত্মহত্যার উপর বিস্তারিত তথ্য ও উপাত্ত তুলে ধরেন সেমিনারের রিসোর্স পার্সন প্রফেসর ড. মামুন হোসাইন।তিনি বলেন,বর্তমানে প্রতি ৪০ সেকেন্ডে একজন মানুষ আত্মহত্যা করছে এবং বছর শেষে তার সংখ্যা দাঁড়ায় প্রায় ৮০ লাখ।আর ২০২০ সাল নাগাদ ১.৫ মিলিয়ন মানুষ আত্মহত্যা করবে।তিনি আরো বলেন ৭৫ ভাগের বেশী মানুষ আত্মহত্যা করে নিম্ন আয়ের দেশগুলোতে বিশেষ করে আমাদের দক্ষিণ এশিয়ার দেশগুলোতে আত্মহত্যার সংখ্যা তুলনামূলক একটু বেশী।তাই আমাদের উচিত নিজের ভেতরের হতাশা চেপে না রেখে তা প্রকাশ করে দেয়া।

ইবি প্রতিনিধি: Shahin Alam

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

প্রকাশিত সংবাদ বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি,পাঠকের মতামত বিভাগে প্রচারিত মতামত একান্তই পাঠকের,তার জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়।

Developed By H.m Farhad

Skip to toolbar