,


সংবাদ শিরোনাম:
«» এস.এম. আজহারুল ইসলাম স্মৃতি নাইট ফুটবল টুর্নামেন্টে চ্যাম্পিয়ন অন্বেষা ক্লাব «» সামাজিক ও মানবিক কাজে বিশেষ অবদান রাখায় সম্মাননা পেলো শাকপুর ইউনিয়ন অনলাইন ব্লাড ব্যাংক। «» জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যানের সংবাদ সম্মেলন বন্যা ও ডেঙ্গু পরিস্থিতি নিয়ে «» মোহনা টিভির জ্যেষ্ঠ প্রতিবেদক মুশফিকুর রহমানকে উদ্ধার করা হয়েছে «» আত্মত্যাগের বিনিময়েই হয় কোরবানি  «» উত্তরাতে বাংলাদেশ কেমিস্টস্ এন্ড ড্রাগিস্টস্ সমিতির নতুন কমিটি গঠন «» ডেঙ্গু প্রতিরোধে জাককানইবি’তে ছাত্রলীগের পরিচ্ছন্নতা অভিযান «» জাককানইবি’র অধীনে এমডিএস কোর্সের পূণর্মিলনী অনুষ্ঠিত «» টঙ্গীর সাংবাদিকদের সাথে গণসচেতনতামূলক মতবিনিময়ে আওয়ামীলীগের নেতারা! «» জাককানইবি’তে বঙ্গবন্ধু নীলদলের মাস ব্যাপি কাল ব্যাজ ধারণ কর্মসূচী

উত্তরার ঔষধ ব্যবসায়ীরা জিম্মি-জামাত নেতা বিপ্লবের ভেলকি!

এক সময়ের বগুড়ার আলোচিত জামাত/ শিবির ক্যাডার মোঃ মেজাবাহুল ইসলাম (বিপ্লব) বর্তমানে উত্তরার উপশাখা বাংলাদেশ কেমিষ্ট এন্ড ড্রাগিষ্ট (বিসিডিএস) সমিতির সভাপতি। বিগত দুই বৎসর উক্ত সংগঠনের সভাপতির পদের মাধ্যমে চালিয়ে যা”েছ তার রাজনৈতিক কর্মকান্ড এবং সংগঠিত হ”েছ জামাতী মতবাদ বিশ^াসী লোকজন এছাড়াও তার সহযোগী সাধারণ সম্পাদক মিয়া শরিফুল ইসলাম একটি সুনামধন্য ফার্মেসী ম্যানেজার তার নামে নেই কোন ড্রাগ লাইসেন্স অথচ বগুড়া আজিজুল হক বিশ^বিদ্যালয় কলেজের পাশে বাড়ি জামাত নেতার যোগসাজেসে সেজেছে অবৈধ সাধারণ সম্পাদক। সরেজমিনে তদন্ত করে জানা যায় “গুড হেল্থ ফার্মা” নামের সাইনবোর্ড হীন নাম সর্ব¯’ দোকানের নামের সদস্য করনের উনি সভাপতি হয়ে বসে আছেন। উক্ত সংগঠনের গুড হেল্থ ফার্মা নামে দোকানে রয়েছে মেয়াদত্তীর্ণ ঔষধের ছাড়াছড়ি। রোড- ১৮, বাড়ী- ১৩, সেক্টর নং- ০৩, উত্তরা এই ঠিকানায় বসে সে চালিয়ে যায় যত সব অপকর্ম ও চাঁদাবাজি।
নাম প্রকাশে অনি”ছুক জৈনিক ব্যবসায়ী বলেন একটা ভালো মানের সংগঠন হ”েছ বিসিডিএস, অথচ গত কয়েক বছর বিপ্লব নামের দানবের চাঁদাবাজি অত্যাচারে অতিষ্ঠ ব্যবসায়ী সমাজ বিভিন্ন ফার্মেসীতে তার নিজস্ব সোর্সের মাধ্যমের অবৈধ ঔষধ ডুকিয়ে তার পর ড্রাগ সুপারের মাধ্যমে তল্লাশী চালায়। পরবর্তীতে ব্যবসায়িক জরিমানা করে ঐ টাকার অংশ দিয়ে সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক আনন্দ ফুর্তিতে মেতে উঠে। এখন আর সমিতি কোন কল্যান করে না, করে সন্ত্রাসী কাজ।

কিছুদিন পূর্বে এই কমিটির মেয়াদ শেষ হয় কিš‘ তার পরও সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক পদ দখল করে অন্যায় ভাবে তার চাঁদাবাজি অংশীদার নিয়ে আরেকটি কমিটি পাশ করার অপপ্রয়াস চালায়, জামাতী বিপ্লবের একমাত্র ই”েছ সেই সভাপতি হবে। যা তে তাকে কেউ সন্দেহের চোখে না দেখে। যার ফলে তার চাঁদাবাজী ও অবৈধ রাজনৈতিক কর্মকান্ড চালিয়ে যেতে সুবিধা হয়। সভাপতির নামের এই দানবের হাত থেকে (বিসিডিএস) বাংলাদেশ কেমিষ্ট এন্ড ড্রাগিষ্ট উপশাখা বৃহত্তর উত্তরার সদস্য/ ঔষধ ব্যবসায়ীরা মুক্তি চায়।
কিছুদিন পূর্বে সমিতির চাঁদা আদায়কারী কালাম নামে এক কর্মচারী কে ক্ষমতার অপব্যবহার করে চাকুরীচুত্য করেন। তদন্ত করে দেখা গেল তার অপকর্মের স্বাক্ষ্য হওয়ায় এই ছেলেটি কে অন্যায়ভাবে কারো মতামত ছাড়াই চাকুরীচুত্য করে। বিভিন্ন ডায়গনস্টিক ও ঐষধ বিক্রয় প্রতিনিধির নিকট বার্ষিক বনভোজনের নামে প্রচুর টাকা চাঁদাবাজী করে এই বিপ্লব সিন্ডিকেট। প্রতিবেদকের নিকট অনেক ব্যবসায়ী আক্ষেপ করে বলে মুক্তিযুদ্ধের স্বপক্ষের শক্তি ক্ষমতায় থাকার পরও বিভিন্ন নামে বেনামে জামাতী বিপ্লবরা মাথা উচিঁয়ে পদ দখল করে এবং অপকর্ম করে বেড়ায়। এই দানব বিপ্লব নামের সভাপতির অত্যাচারের খড়গ থেকে কবে মুক্তি মিলবে উত্তরার ঔষধ ব্যবসায়ীদের।
চলবে পরবর্তী পর্বে।
(প্রকাশিত সু.- দৈনিক স্বাধীন সংবাদ-)

                                                      মুহাম্মদ মহাসিন

                                                         (বার্তা বিভাগ)

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

প্রকাশিত সংবাদ বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি,পাঠকের মতামত বিভাগে প্রচারিত মতামত একান্তই পাঠকের,তার জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়।

Developed By H.m Farhad

Skip to toolbar