,


সংবাদ শিরোনাম:

উত্তরার রাজপথ দখলরাজত্ব শাসনে অশান্তিতে জনজীবন (১)

ঘুরে ফিরে রাস্তাঘাট,সরকারী জমি,বেড়িবাধ,জনপথ,ফুটপাত দখলবাজী চলছে অশান্তিতে অতিষ্ট (প্রতিবেদন-১)

দিনে লাখ টাকা চাঁদা আদায় সড়কে বসেছে অস্থায়ী দোকান উত্তরায় , উত্তরা পূর্ব ও পশ্চিম থানা এলাকায় সড়ক ও ফুটপাত দখল করে নিয়মিত প্রায় হাজার হাজার দোকান বসে চলে কালেকশন। এতে সৃষ্টি হয় যানজটের। চলাচলে ভোগান্তিতে পড়তে হয় পথচারী ও সাধারণ মানুষক।
উত্তরার বাসিন্দারা বলছেন, পুলিশ নিয়মিত তদারক না করার কারণেই ভ্রাম্যমাণ ব্যবসায়ীরা ফুটপাত-রাস্তা দখল করার সাহস পাচ্ছেন। অভিযোগ আছে, পুলিশের অনেক সদস্যই ভ্রাম্যমাণ ব্যবসায়ীদের কাছ থেকে চাঁদা পান। তাই তাঁরা এসব অবৈধ দোকান উচ্ছেদের ব্যাপারে কোনো পদক্ষেপ নিচ্ছে না তেমন।
ফুটপাতে বসা ব্যবসায়ীরা জানান, ব্যবসা করতে দৈনিক তাঁদের ১০০-৬০০ টাকা হারে চাঁদা দিতে হয় । প্রতিদিন এই চাঁদা তোলার দায়িত্বে আছেন  লাইনম্যানরা । নতুন কেউ পজেশন (দোকান বসাতে) নিতে চাইলেলাইনম্যানই ঠিক করেন জায়গা, নতুন ব্যবসায়ীরা কোথায় দোকান নিয়ে বসবেন ঠিক করেদেন। তাঁরা স্থানীয়ভাবে  রাজনীতির সঙ্গে জড়িত বলে জানা গেছে।
নতুন দোকান বসানোর প্রক্রিয়া সম্পর্কে লাইনম্যানরা বলেন  চাইলেই ফুটপাতে দোকান বসানো যাবে না । তবে টাকাটা নিয়মিত দিতে হবে আগে।
খোঁজ নিয়ে জানা যায়, সকাল থেকে চাঁদা তোলা শুরু হয় রাতে ও চলে।
ব্যবসায়ীদের অভিযোগ, চাঁদা দিতে না চাইলে ব্যবসা বন্ধ করে দোকানের মালামাল রাস্তায় ফেলে দেওয়া হয় ও পলিশ দিয়ে হয়রানী করান ।
সরেজমিনে দেখা যায়,আজমপুর,আব্দুল্লাহপুর,বেড়িবাধ,আশুলিয়া রোড়ে, ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের অভয় পাশে পশ্চিমে জসীমউদ্‌দীন থেকে উত্তরা বিএনএস টাওয়ার পর্যন্ত সার্ভিস সড়ক ও ফুটপাতে প্রায় সড়কে দোকানপার্ট, হয়েছে, হাউস বিল্ডিং বাসস্ট্যান্ড থেকে ১২ নম্বর সেক্টর খালপাড়

(মামুন মিয়া বিশেষ প্রতিবেদক,  আবডেট আসছে..)

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

প্রকাশিত সংবাদ বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি,পাঠকের মতামত বিভাগে প্রচারিত মতামত একান্তই পাঠকের,তার জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়।

Developed By H.m Farhad

Skip to toolbar