,


সংবাদ শিরোনাম:
«» কুমিল্লা জেলার ১১ ক্যাটাগরিতে ৮ পুলিশ কর্মকর্তার সাফল্য অর্জন।  «» পীর কাশিমপুরে জনসচেতনতামূলক ক্যাম্পেইন «» ”কুমিল্লা মুরাদনগরের মাদ্রাসা ছাত্র রহমতুল্লাহ ৫ দিন ধরে নিখোঁজ” «» নির্বাচিত হলে সমস্যা সমাধানের সর্বাত্মক চেষ্টা করবো ৪৭ নম্বর ওয়ার্ডের হেলাল তালুকদার «» ধানের শীষের প্রার্থীর পক্ষে গণজোয়ার দেখতে পাচ্ছি «» উওরার রাজপথে আফছার খানের প্রচারনায়,আবারো নির্বাচিত হবে বিপুল ভোটে… «» জাপার যুগ্ম মহাসচিব ফেরারি ফাঁসির আসামি-টঙ্গীতে নানা রকম ফেসবুকে ঝড় ? «» দুই সিটি ভোট কেন্দ্রের তালিকা প্রকাশ «» কুমিল্লায় শীতকালীন ক্রীড়া প্রাতিযোগিতার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে শিক্ষামন্ত্রী- ডা: দিপু মনি। «» দুই সিটি নির্বাচনের নতুন তারিখ ১ ফেব্রুয়ারি

উত্তরা মডেল টাউন এলাকা নিয়ে গঠিত গুরুত্বপূর্ণ ১নং ওয়ার্ড সিটির ভোটের প্রচারে কর্মী-সমর্থকরা মাঠে

(=মশার যন্ত্রণায় অতিষ্ঠ-নির্বাচিত হলে হকারদের পুর্নবাসন করার ব্যবস্থা করব=)

উত্তরা মডেল টাউন এলাকা নিয়ে গঠিত ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের গুরুত্বপূর্ণ ১নং ওয়ার্ড। উত্তরার ১০টি সেক্টর রয়েছে এই ওয়ার্ডের মধ্যে। এর আয়তন ৬ দশমিক ০৯৫ বর্গকিলোমিটার। প্রায় ৭০ হাজার ভোটার রয়েছে এই ওয়ার্ডে। লোকসংখ্যা প্রায় দেড় লাখ। আবাসিক এলাকা হলেও এখানে রয়েছে ব্যাপক নাগরিক সেবার ঘাটতি। ড্রেনেজ ব্যবস্থার দুর্বলতার কারণে বর্ষাকালে পানি উপচে রাস্তায় জমে থাকে। বিভিন্ন স্কুল ও কলেজের কারণে মোড়ে মোড়ে সৃষ্টি হয় ব্যাপক যানজট, ফুটপাতগুলো রয়েছে হকারদের দখলে। এই এলাকায় কিশোর গ্যাংয়ের উত্পাত রয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন এলাকাবাসী। রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ উত্তরার সেক্টরগুলোকে আবাসিক সেক্টর হিসেবে গড়ে তুলেছিল। বর্তমানে নানা কারণে সেক্টরের আবাসিক পরিবেশ ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে বলে সেক্টরবাসীর অভিযোগ। সেক্টরের ভেতরে ব্যাঙের ছাতার মতো গড়ে উঠেছে বিভিন্ন ব্যবসাপ্রতিষ্ঠান। বাসাবাড়িতে, গাড়ি পার্কিংয়ের জায়গায় এসব বাণিজ্যিক কার্যক্রম চলছে। সেক্টরের খালি প্লটগুলোতে অবৈধভাবে রিকশার গ্যারেজ, ওয়ার্কশপ, টং দোকান বানিয়ে ভাড়া তুলছে স্থানীয় প্রভাবশালী ব্যক্তিরা। অন্যদিকে শাহজালাল অ্যাভিনিউ, রবীন্দ্র সরণি, গরিবে নেওয়াজ অ্যাভিনিউ, সোনারগাঁও জনপদ অ্যাভিনিউর মতো বড়ো সড়ক ও ফুটপাতের জায়গা, এমনকি সড়ক বিভাজকের জায়গা দখল করে হকার বসছে নিয়মিত। এদিকে সন্ধ্যার পরে মশার যন্ত্রণায় অতিষ্ঠ হয়ে ওঠে সেক্টরের বাসিন্দারা।

এবার এই এলাকায় আওয়ামী লীগ থেকে মনোনয়ন পেয়েছেন বর্তমান কাউন্সিলর আফসার উদ্দিন খান। বর্তমান কাউন্সিলর হিসেবে তিনি বহু কাজ করেছেন বলে দাবি করেন।

অন্যদিকে এই ওয়ার্ডে বিএনপি থেকে মনোনয়ন পেয়েছেন বিএনপি নেতা মোস্তাফিজুর রহমান সেগুন। তিনি বলেন, আমি নির্বাচিত হলে হকারদের পুর্নবাসন করার ব্যবস্থা করব। কিশোর গ্যাং সামাজিকভাবে নিয়ন্ত্রণ করার চেষ্টা করব। একটি আধুনিক আবাসিক ওয়ার্ড গড়ে তোলার জন্য কাজ করব। একটি পরিষ্কার ও পরিচ্ছন্ন আবাসিক এলাকা গড়ে তোলাই হবে আমার কাজ। এছাড়া সারাবছর মশা নিধন কর্মসূচি পালন করব। যারা ছাদে বাগান গড়ে তুলবে নির্বাচিত হলে তাদের পুরস্কারের ব্যবস্থা করব। এই ওয়ার্ডের বাসিন্দারা বলেন, নাগরিক সেবা যে নিশ্চিত করবে আমরা তাদেরই ভোট দিব। আবাসিক এই এলাকায় নাগরিক সেবার অনেক ঘাটতি রয়েছে। আশা করছি যারা জনপ্রতিনিধি হবেন তারা এই সমস্যা সমাধানে উদ্যোগ নিবেন।

প্রতিবেদক- নিলয় মামুন

( দৈনিক ইত্তেফাক )

আবডেটে-মুহাম্মাদ মহাসিন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

প্রকাশিত সংবাদ বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি,পাঠকের মতামত বিভাগে প্রচারিত মতামত একান্তই পাঠকের,তার জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়।

Developed By H.m Farhad