,


সংবাদ শিরোনাম:

উত্তরা রিক্সা মালিক ঐক্য পরিষদের প্লেট বানিজ্যর শাসন-পুলিশের হয়রানী বন্ধে চাদাবাজী?

তুরাগ-উত্তরায় চলছে দাপড়ী চাদাবাজী রিক্সার প্লেট টেকেন শাসনে বেসামাল-পুলিশের হয়রানী বন্ধর নামে…

উত্তরা রিক্সা মালিক ঐক্য পরিষদের আলোচনা সভা ও মতবিনিময় তলবী সভার নামে চাদাবাজী সভাপতির তা নিয়ে চলছে আলোচনা সমালোচনা ঝড়!, গত ০৬,০৪,১৯, রোজ শনিবার বিকালে উত্তরার নিকটে তুরাগের ফুলবাড়ীয়া বালুর মাঠ অফিসে জরুরী তলবী সভা হয় সে সভার নামে রিক্সার মালিকদের কাছ থেকে সভার নামে ৫ হাজার থেকে ১৫-১০,হাজার টাকা করে আদায় করেন সভাপতি সহ তার লোকজন,প্রায় তিন থেকে ৫ লাখ টাকা চাদাবাজী করেন কাদেরের কথিত বাহিনী বলেন রিক্সার মালিকরা।সে সভায় থানা পুলিশের হয়রানী ও অন্য রিক্সা চলাচলে বন্ধ করনী,রিক্সা পুলিশের আটক বন্ধ করনী সহ  নয়া সিটি নিয়ম মানা নিয়ে আলোচনা করা হয়।

রাজধানীতে উত্তরায় তুরাগে রিক্সার প্লেট বানিজ্য রমরমা প্রকাশে চলছে নামে বেনামে  অবৈধ ভাবে রিক্সার প্লেট টোকেন ব্যাবসা ও ধান্ধাবাজী ফিংটি ফাদ, যেমন উত্তরা রিক্সা মালিক ঐক্য পরিষদ নামে সংগঠনের অর্ধ লাখ প্লেট চলছে। উত্তরার সকল সেক্টরে ও তুরাগের  সড়কগুলোতে রিক্সার পিছনে সাটানো দেখা যায়  প্রতিটি রিক্সার মাসিক হাজার টাকা করে সংগঠনের সভাপতি-সাধারন সম্পাদক কে দিতে হয় । রিক্সার মালিক ওচালকরা প্রতিবেদন কে জানান (উত্তরা রিক্সা মালিক ঐক্য পরিষদ অনেক প্রভাবশালী তাদের প্লেট রিক্সায় না লাগালে রিক্সা রাস্তা থেকে রিক্সা চোরেরা নিয়ে যায় সে জন্য আমার রিক্সার মালিক(উত্তরা রিক্সা মালিক ঐক্য পরিষদের প্লেট নিয়ে রিক্সায় লাগিয়ে রেখেছে মাসিক টাকা দিয়ে । (উত্তরা রিক্সা মালিক ঐক্য পরিষদের প্লেটে অবাধে চলাচল করছে শাসন রিক্সা । কতিপয় নামধারী সংগঠনের নামে প্লেট-টোকেন তৈরি করে লাখ লাখ টাকা বানিজ্য চলছে অবৈধ ধান্ধাবাজী। রাজনৈতিক নেতাকর্মী ও প্রসাশনের কিছু অসাদু ব্যক্তির পকেটে টাকার ভাগ যাচেছ বলেন রিক্সা চালকরা । প্লেটের-টোকেন টাকার বিনিময়ে নির্দিষ্ট এলাকায় চলাচলের অনুমতি থাকে চোরে নিবেনা রিক্সা নেতারা বলেদেন ।নাম না প্রকাশে রিক্সা মালিক  জানান, “ নির্ধারিত ৬০০ ও ১০০০ হাজার টাকা ফি দিয়ে প্লেট- টোকেন নবায়ন করা হয়।যথা সময়ে  প্লেট ফি না দিলে ট্রাফিক পুলিশ হয়রানি করে রাস্তায়।বেশ কয়েকজন রিক্সার মালিক বলেন, উত্তরা রিক্সা মালিক ঐক্য পরিষদের সভাপতি কাদের মন্ডল ও সাধারন সম্পাদক লাল চাঁনের  কোটি টাকা বানিজ্য অবৈধ কামায়ে বেপোরয়া তারা চোর লালন পালন করেন । তাদের প্লেট না লাগালে তাদের রিক্সা গাড়িগুলো পুলিশ দিয়ে আটক করানো হয়। এজন্য রাস্তার মোড়ে মোড়ে সংগঠনগুলো পারিশ্রমিক দিয়ে শ্রমিক নিয়োগ করে রাখেন।

উত্তরা রিক্সা মালিক ঐক্য পরিষদের সভাপতি  কাদেরের সাধে যোগাযোগের চেষ্টা করে তাকে পাওয়া যায়নি মতামত,।

(তুরাগ প্রতিনিধি , আবুল কালাম )

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

প্রকাশিত সংবাদ বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি,পাঠকের মতামত বিভাগে প্রচারিত মতামত একান্তই পাঠকের,তার জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়।

Developed By H.m Farhad

Skip to toolbar