,


সংবাদ শিরোনাম:
«» কুমিল্লার বরুড়ার শিক্ষক আমিনুল ইসলাম চৌধুরী” জীবনে কিছু কথা «» কুমিল্লায় শীত কালে খেজুরের রস সংগ্রহ করার জন্য গাছিরা ব্যস্ত «» কুমিল্লায় সেতুর অভাবে জণজীবন বিপন্ন! ভোগান্তিতে ২টি উপজেলার বাসিন্দা! «» দৈনিক সংগ্রাম সম্পাদক কারাগারে আইসিটি মামলায় «» মিরপুরে শহীদ বুদ্ধিজীবী স্মৃতিসৌধে বিএনপির নেতাদের শ্রদ্ধা নিবেদন «» জি এম কাদের চাপে-রওশনপন্থীরা! «» আজ শহীদ বুদ্ধিজীবী দিবস «» কেরানীগঞ্জের প্লাষ্টিক কারখানায় অগ্নি দূর্ঘটনায় হতাহতে জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যানের শোক «» জাতীয় মুক্তিযোদ্ধা প্রজন্ম পার্টির কেন্দ্রীয় কমিটির আহ্বায়ক নির্বাচিত জহিরুল ইসলাম মিন্টু «» বাগেরহাটে অষ্টম শ্রেণির এক স্কুলছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ

ক্যাম্পাসে বন্ধু বন্ধুত্ব জুনিয়র সিনিয়র :; সাংবাদিক রোকন

ক্যাম্পাসে বন্ধু বন্ধুত্ব জুনিয়র সিনিয়র 

রোকন মিয়া ::

আমরা সবাই প্রথম পর্যায়ে নতুন
জায়গায় গিয়ে বন্ধুহীন
অবস্থার মধ্যে পড়ি। হতে
পারে সেটা, স্কুল, কলেজ,
বিশ্ববিদ্যালয় এমনকি
কর্মস্থল। বন্ধুহীন কোনো
স্থানে গিয়ে নতুন বন্ধু
বানানো অনেকটা যুদ্ধ
জেতার মতোই। কারণ
যেখানে সবাই আপনার
অপরিচিত, সেখানে
নিজের সমস্ত অনুভূতি ও সুখ-
দুঃখের কথা বলার মতো
কাউকে খুঁজে নেয়া কঠিন
কাজ।
– বিশ্ববিদ্যালয় জীবনে
সিনিয়র-জুনিয়র সম্পর্ক
গুরুত্বপূর্ণ তাৎপর্য বহন করে
থাকে। বয়স যা-ই হোক না
কেন, নতুন শিক্ষার্থী
হিসেবে ক্যাম্পাসের
বড়দের প্রতি শ্রদ্ধাশীল
থাকুন। পক্ষান্তরে ছোট
যারা আছে, তাদের প্রতিও
স্নেহশীল হতে হবে। অযথা
কারো সঙ্গে
মনোমালিন্যে জড়াবেন
না। যে-কোনো সমস্যায়
তাদের সাহায্য নিন। এতে
সম্পর্কের বন্ধন হবে আরো
জোরালো ও স্থায়ী।
– সিনিয়র শিক্ষার্থী
কিংবা সহপাঠী সবার
সঙ্গেই নিয়ম বজায় রেখে
মজা করতে পারেন।
ক্যাম্পাসে নতুন বলে
নিজেকে গুটিয়ে রাখবেন
না। সবার সামনে
নিজেকে উপস্থাপন করতে
শিখুন। আনন্দ
ভাগাভাগিতে সঙ্গী করুন
সবাইকে।
– ক্যাম্পাসের নতুন বন্ধু
কিংবা সিনিয়রদের
চাওয়া বুঝতে চেষ্টা করুন।
তবে এক্ষেত্রে বুদ্ধিমত্তার
পরিচয় দিতে হবে। সবদিক
চিন্তাভাবনা করেই
মিশতে হবে।
– আপনার আত্মবিশ্বাস ধরে
রেখে নতুন জায়গার
মানুষগুলোর সঙ্গে মিশতে
শুরু করুন। তাদের সঙ্গে
আলোচনায় যোগ দিন আর
সেই সঙ্গে সাহায্য করার
মন মানসিকতা বজায় রাখুন।
– অহংবোধ কমবেশি সবারই
থাকে। কিন্তু তা নিয়ে
বসে থাকলে হবে না।
বিশ্ববিদ্যালয়ের সব
ব্যাচের শিক্ষার্থীদের
সঙ্গে ধীরে ধীরে গড়ে
তুলুন সমঝোতার সম্পর্ক।
– নিয়মিত সেই সব
জায়গাগুলোতে যাওয়ার
চেষ্টা করুন যেখানকার
পরিবেশের সঙ্গে
মানুষগুলোকে আপনি বন্ধুতে
রূপান্তরিত করতে চান।
নিয়মিত যাওয়া আসা চললে
সেখানকার মানুষগুলো
যেমন আপনার পরিচিত হয়ে
উঠবে, একইভাবে আপনিও
তাদের সুপরিচিত হয়ে
উঠবেন। আর এভাবেই
বন্ধুত্বের বীজ বপন হবে।
– অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করুন।
আপনার সহপাঠীদের
বিভিন্ন ইভেন্টে যাওয়া-
আসা শুরু করুন। দেখবেন খুব অল্প
সময়ের মধ্যেই আপনার বেশ
কিছু ভালো বন্ধু তৈরি
হবে আর ক্যাম্পাস জীবন
হয়ে উঠবে আপনার জীবনের
স্মরণীয় অধ্যায়।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

প্রকাশিত সংবাদ বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি,পাঠকের মতামত বিভাগে প্রচারিত মতামত একান্তই পাঠকের,তার জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়।

Developed By H.m Farhad