Logo
,


সংবাদ শিরোনাম:
«» মুলাদীতে ৩য় শ্রেনীর স্কুল ছাত্রী ধর্ষণ ॥ মামলা দায়ের «» কুলাউড়ায় রাজনৈতিক প্রতিহিংসার শিকার আওয়ামীলীগের কয়েকটি পরিবার! «» মাদারীপুরের অ্যাডভোকেট মহসিন একটু সাহায্যেই বেঁচে যাবে ভারতের মনিপাল হাসপাতালে চিকিৎসাধীন? «» চেয়ারম্যানের দায়িত্বে জিএম কাদের এরশাদের অবর্তমানে «» এরশাদ সত্যিই অসুস্থ-পরশু সিঙ্গাপুর যাবেন-অসুস্থতা নিয়ে নানা প্রচারণা… «» চলচ্চিত্রের অভিনেতা তানভীর হাসানের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার «» সাংবাদিকদের কল্যাণে কাজ করার অঙ্গীকার তথ্যমন্ত্রীর «» সফলতায় সংবাদ মাধ্যম এবং ওলামায়ে কেরামসহ সকলের দোয়া কামনা করেন ধর্ম প্রতিমন্ত্রী আলহাজ শেখ মোহাম্মাদ আব্দুল্লাহ  «» চট্টগ্রাম মহানগর আওয়ামী লীগ নেতাদের ফুলেল শুভেচ্ছা প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে «» জাতীয় পার্টির কো-চেয়ারম্যান জিএম কাদের এবং মহাসচিব রাঙ্গাকে গনসংবর্ধনা

গাংনীর হাড়াভাঙ্গা আদর্শ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের মানববন্ধন

স্টাফ রিপোর্টার : মেহেরপুরের গাংনী উপজেলার কাজীপুর ইউনিয়নের হাড়াভাঙ্গা আদর্শ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষকের কাছে চাঁদা দাবীর প্রতিবাদে ও চাঁদাবাজকে গ্রেফতার এবং তার বিচারের দাবীতে মানববন্ধন করা হয়েছে।

আজ মঙ্গলবার দুপুর সাড়ে ১২ টার সময় ওই বিদ্যালয়ের সামনে রাস্তার উপর প্রায় আধা ঘণ্টাব্যাপি মানববন্ধন করে বিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষিকা ও শিক্ষার্থীরা ।

বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক টুকুল মাহমুদের নেতৃত্বে অনুষ্ঠিত মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন, বাংলাদেশ মাধ্যমিক শিক্ষক সমিতির মেহেরপুর জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক ও গাংনীর জেটিএস মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক ফিরোজ জাহাঙ্গীর হেলু, সহ-সভাপতি এবং এম.এইচ.এ মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক রফিকুল ইসলাম, যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও সি.এফ.এম মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আল-হেলাল, কাজীপুর মাথাভাঙ্গা মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক কামাল হোসেন, হাড়াভাঙ্গা মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক সাইদুল হাসান পলাশ, হাড়াভাঙ্গা আদর্শ মাধ্যমিক বিদ্যালয় পরিচালনা পর্ষদের সভাপতি শফিকুল ইসলাম শফিসহ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক-শিক্ষিকাবৃন্দ ।

হাড়াভাঙ্গা আদর্শ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক টুকুল মাহমুদ জানান, হাড়াভাঙ্গা গ্রামের ইয়াহিয়া মোল্লার ছেলে জুরাইস হোসেন সাংবাদিক পরিচয় দিয়ে দীর্ঘদিন যাবত এলাকায় চাঁদাবাজীসহ নানা ধরণের অপকর্ম চালিয়ে আসছিল। সে বেশ কয়েকদিন যাবত আমার কাছে ৩ লাখ টাকা চাঁদাদাবী করে আসছিল। তার দাবীকরা চাঁদা না দিতে চাইলে, সে আমাকে বিভিন্ন সময় নানা ভাবে হুমকি দিয়ে আসছিল। গত সোমবার বিকেল তিনটার সময় বিদ্যালয়ে এসে আবারো চাঁদা দাবী করে জুরাইস। এসময় অন্যান্য শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা তাকে মারধর শুরু করেন। পরে এক পর্যায়ে সে কৌশলে পালিয়ে যায়। তিনি আরো জানান, এর আগেও সে বিদ্যালয়ের উন্নয়ন কাজ চলার সময় ৫০ হাজার টাকা চাঁদা দাবী করেছিল। জুরাইস হোসেন গত বছর র‌্যাপিড এ্যাকশন ব্যাটালিয়ন (র‌্যাব-১২) (কুষ্টিয়া) ক্যাম্পের সদস্যদের হাতে চাঁদাবাজির কারণে আটক হয়েছিল। জুরাইস হোসেন এলাকার লোকজনকে মিথ্যা মামলার ভয় দেখিয়ে পুলিশের নাম ভাঙ্গিয়ে নিরবে ব্যাপক চাঁদাবাজি করে আসছিল।
জুরাইস হোসেনের চাঁদাবাজীর কারণে বর্তমানে বিদ্যালয়ের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের মাঝে আতঙ্ক বিরাজ করছে বলে জানান তারা।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

প্রকাশিত সংবাদ বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি,পাঠকের মতামত বিভাগে প্রচারিত মতামত একান্তই পাঠকের,তার জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়।
Skip to toolbar