,


সংবাদ শিরোনাম:

চাঁদপুরের যুবলীগ নেতাকর্মীরা ঢাকায় সম্মেলন মুখী…

আওয়ামী লীগের সহযোগী সংগঠন যুবলীগের সপ্তম কংগ্রেস (সম্মেলন) আগামীকাল শনিবার। ঢাকায় যুবলীগের সম্মেলনে যোগদিতে জেলা- পৌরসভা কমিটির যুবলীগের নেতারা ও থানা-ইউনিয়ন কমিটির যুবলীগের হাজার হাজার নেতাকর্মী ঢাকা মুখি নৌ-পথে ও পরিবহনে বহর নিয়ে আসবেন ।চাঁদপুরের বিভিন্ন সড়কে মহাসড়কে ব্যানার-পোষ্টার ফেস্টুন সাটানো হয়েছে যুবলীগের সম্মেলন প্রচার প্রচারনা চলছে।

চাঁদপুর জেলার ১০ নং লক্ষীপুর মডেল ইউনিয়নে চেয়ারম্যান প্রার্থী ও চাঁদপুর জেলা যুবলীগের মোঃ আলগীর হোসেন গাজী, প্রতিবেদক কে বলেন: চাঁদপুর জেলা যুবলীগের যে সকল নেতাকর্মীরা ঢাকায় যুবলীগের সম্মেলনে আসবেন যোগ দিবেন তাদের জন্য খাবার আয়োজন করা হযেছে যেমন বিরিয়ানি-পানি,সহ হরেক রকম সকাল থেকে রাত পর্যন্ত আয়োজন, জননেত্রী শেখ হাসিনার বিশ্বস্ত সহচর বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক দক্ষ সংগঠক কর্মীবান্ধব-মাননীয় শিক্ষামন্ত্রী ডাক্তার দীপু মনি এমপি‘র নেতৃত্বে যুবলীগের নেতা-কর্মীরা ঢাকায় যুবলীগের সম্মেলনে যোগ দিবেন।

যুবলীগকে এই সম্মেলনের মধ্য দিয়ে ঢেলে সাজানো হবে। পরিচ্ছন্ন ও বিতর্কমুক্ত নেতৃত্বের হাতেই দেওয়া হবে যুবলীগের দায়িত্ব। ঐতিহাসিক সোহরাওয়ার্দী উদ্যানে এদিন সকালে সম্মেলন উদ্বোধন করবেন আওয়ামী লীগ সভাপতি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। আওয়ামী লীগের নীতিনির্ধারণী পর্যায়ের নেতারা বলছেন, যুবলীগের প্রতিষ্ঠাতা শেখ ফজলুল হক মণি। যুবলীগের বর্তমান কমিটির নেতাদের মধ্য থেকে একজনকে সাধারণ সম্পাদক নির্বাচিত করা হতে পারে সম্মেলনে নতুন মুখ আসতে পারে সভাপতি হিসাবে। যুবলীগের কংগ্রেস প্রস্তুত কমিটির আহ্বায়ক চয়ন ইসলাম বলেন, কংগ্রেসের জন্য মঞ্চটি তৈরি করা হয়েছে পদ্মা সেতুর আদলে। আওয়ামী লীগ সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রতীকী পদ্মা সেতুর ওপর বসে সম্মেলনের প্রথম পর্ব উপভোগ করবেন। দ্বিতীয় পর্ব বেলা ৩টায় শুরু হবে ইঞ্জিনিয়ার্স ইনস্টিটিউশন মিলনায়তনে। এ পর্বেই সংগঠনের নেতৃত্ব নির্বাচন করা হবে। যুবলীগের নেতারা জানান, প্রতিষ্ঠার পর থেকে এ পর্যন্ত সংগঠনের ৬টি কেন্দ্রীয় কমিটি হয়েছে। এর মধ্যে চারটিতে চেয়ারম্যান ছিলেন সংগঠনের প্রতিষ্ঠাতা শেখ ফজলুল হক মণি ও তার নিকটাত্মীয়রা।এবারই প্রথম যুবলীগের নেতাদের বয়সসীমা বেঁধে দেওয়া হয়েছে। সে ক্ষেত্রে ৫৫ বছরের বেশি বয়সী কারও নেতৃত্বে আসার সুযোগ নেই এবার।

ছাত্রলীগের সাবেক শীর্ষ নেতাদের অনেকেই চেষ্টা চালাচ্ছেন যুবলীগের শীর্ষ পদে আসতে।

যুবলীগের বর্তমান সাধারণ সম্পাদক ও সম্মেলন প্রস্তুত কমিটির সদস্য সচিব হারুনুর রশীদ বলেন, সাংগঠনিক নেত্রী শেখ হাসিনাই নতুন নেতৃত্ব চূড়ান্ত করবেন।

যুবলীগের সব শেষ সম্মেলন হয় ২০১২ সালের ১৪ জুলাই। তিন বছর মেয়াদি এই কমিটির মেয়াদ শেষ হয়েছে চার বছর আগে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

প্রকাশিত সংবাদ বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি,পাঠকের মতামত বিভাগে প্রচারিত মতামত একান্তই পাঠকের,তার জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়।

Developed By H.m Farhad