• মঙ্গলবার, ১৬ জুলাই ২০২৪, ০৯:৩২ পূর্বাহ্ন

জামালপুরে শেখ হাসিনা মেডিকেল কলেজে ক্যাম্পাস উদ্বোধন

71Times / ৪৫৭৮২ Time View
Update : সোমবার, ২৪ জুলাই, ২০২৩

জামালপুরে শেখ হাসিনা মেডিকেল কলেজে ক্যাম্পাস উদ্বোধন
মো. আলমগীর, জামালপুর।
জামালপুরে শেখ হাসিনা মেডিকেল কলেজে স্থায়ী ক্যাম্পাস উদ্বোধন ও ২০২২-২৩ শিক্ষাবর্ষের এমবিবিএস ১ম বর্ষের শিক্ষার্থীদের নবীন বরণ ও পরিচিতি সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে।
স্থায়ী এ ক্যাম্পাস উদ্বোধন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক ও জামালপুর-৩ আসনের সংসদ সদস্য মির্জা আজম এমপি।
রবিবার (২৩ জুলাই) সকাল ১১টায় মেডিকেল কলেজে ফলক উন্মোচনের মাধ্যমে এ স্থায়ী ক্যাম্পাস উদ্বোধন করা হয়। পরে সেখানে দুপুর ২টা পর্যন্ত চলে আলোচনা সভা।
শেখ হাসিনা মেডিকেল কলেজের অধ্যক্ষ অধ্যাপক ডা. এ এস এম ইকবাল হোসেন চৌধুরীর সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় বিশেষ অতিথির বক্তব্য দেন বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সংসদীয় স্থায়ী কমিটির সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব ইঞ্জিনিয়ার মো. মোজাফ্ফর হোসেন এমপি, দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের সচিব মো. কামরুল হাসান, স্বাস্থ্য শিক্ষা অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. বায়জীদ খুরশীদ রিয়াজ, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এডভোকেট মুহাম্মদ বাকী বিল্লাহ, ময়মনসিংহ বিভাগীয় পরিচালক (স্বাস্থ্য) ডা. মো. শফিউর রহমান, জেলা স্বাধীনতা চিকিৎসক পরিষদের (স্বাচিপ) সভাপতি ডা. মোশায়ের-উল-ইসলাম রতন, সিভিল সার্জন ডা. প্রণয় কান্তি দাস,  জামালপুর ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালের সহকারী পরিচালক ডা. মাহফুজুর রহমান সোহান, জামালপুর পৌরসভার মেয়র মো. ছানোয়ার হোসেন ছানু, জেলা আওয়ামী লীগের স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা বিষয়ক সম্পাদক ডা. সাজদা-ই-জান্নাত তনু, কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের উপ মানবসম্পদ উন্নয়ন বিষয়ক সম্পাদক ডা. মো. হাবিবুল্লাহ, শেখ হাসিনা মেডিকেল কলেজের সহকারী অধ্যাপক ডা. নাদিম হাসান, শেখ হাসিনা মেডিকেল কলেজ শাখা ছাত্রলীগের সভাপতি তুষার আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক রাফিউল ইসলাম প্রমুখ।
বক্তারা বলেন, অনেক কাঠখড় পুড়িয়ে জামালপুরে শেখ হাসিনা মেডিকেল কলেজ স্থাপিত হয়েছে। স্থাপিত হওয়ার পর আজ নয়টি সেশন চলছে। এই নয় বছরে এখান থেকে অনেক শিক্ষার্থীই মেধাবী ডাক্তার হয়েছেন, আরও হবেন। তবে শুধু টাকা রোজগারের জন্যই মহৎ এ পেশাকে ব্যবহার করবেন না, দেশের দরিদ্র মানুষদের বিনামূল্যে একটু সেবাও করবেন। নবীন শিক্ষার্থীরা এদিকে এগিয়ে আসতে পারেন। এজন্য আগে থেকেই এই মনোবৃত্তি লালন করতে হবে যাতে আপনাদের দিয়ে দেশ ও দশের উপকার হয়।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর

Archives