,


সংবাদ শিরোনাম:

দিশাবন্দে কোর্টের রায় অমান্য করে বাড়ী নির্মাণের অভিযোগ

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ কুমিল্লা মহানগরীর ২০ নং ওয়ার্ডের দিশাবন্দ দক্ষিণ পাড়ায় কোর্টের রায় অমান্য করে জোর পূর্বক বাড়ী নির্মাণ করার অভিযোগ করেছেন বাদী আরিফুর রহমান। ঘটনার বিবরণে জানা যায় আরিফুর রহমান গং দের জায়গা জোর পূর্বক দখল করে কোন নকশা অনুমতি ছাড়া বাড়ী নির্মাণ করে চলেছেন ননা মিয়া গং রা। এই ব্যাপারে আরিফুর রহমান বাদী হয়ে কোর্টের মাধ্যমে একটি মামলা করেন যার নং ৬০৬/১৯ সদর দক্ষিণ, তারিখ: ২৭/০৫/২০১৯ইং। মামলা বিবরণে জানা যায় বিবাদী ননা মিয়া, জামাল হোসেন, জাহাঙ্গীর হোসেন, সাইফুল ইসলাম সর্ব পিতা: মোঃ ননা মিয়া, সর্ব সাং- দিশাবন্দ দক্ষিণ পাড়া, পোষ্ট: রাজাপাড়া, সর্বথানা: সদর দক্ষিণ, জেলা: কুমিল্লা গণ জোর পূর্বক কোনো অনুমতি ছাড়া জায়গা দখল করে বাড়ী নির্মাণ করছেন। বাদী আরিফুর রহমান আরও জানান বিবাদী গণ অত্যন্ত দুষ্ট প্রকৃতির পরধন লোভী ও আইনের প্রতি অশ্রদ্ধাশীল লোক তারা কারও কথাই পাত্তা দেয় না বাড়ী নির্মাণের সময় আরিফুর রহমান এর চাচাত ভাই ২য় পক্ষদের কাজে বাধা দিলে তারা মিজানুর রহমানকে ভাড়াটিয়া লোক দিয়ে আটকিয়ে রাখে বলে অভিযোগ করেন আরিফুর রহমান। আরিফুর রহমান বলেন উক্ত মোকাদ্দমার নালিশী তফসিলোক্ত দাগের ১৮ শতক ভূমি আন্দরে ৩.২৭ শতক ভূমিতে ফজলুর রহমান মালিক ও দখলকার থাকা অবস্থায় ১ম পক্ষ আরিফুর রহমান, মাহবুবুর রহমান ও আনিসুর রহমানকে ০৩ তিন পুত্র এবং শিরিনা আক্তার ও সুলতানা বেগমকে ২ কন্যা ওয়ারিশ বিদ্যমানে পরলোক গমন করেন। তথাবস্থায় হাল বাংলাদেশ জরিপ আমলে ১ম পক্ষ ও তাহার ভ্রাতা ভগ্নিগণকে সরজমিনে দখলে পাইয়া জরিপ কর্মকর্তা কর্মচারীগণ তাহাদের তফসিলোক্ত দাগের ভূমি সংক্রান্ত ৩৩৫ নং বি.এস খতিয়ান শুদ্ধভাবে লিপি ক্রমে চূড়ান্ত প্রচারিত হয়। ১ম পক্ষ তাহার ভ্রাতা ভগ্নিগণ নালিশী তপসিলোক্ত ভূমিতে শান্তিপূর্ণভাবে ভোগ দখল করা অবস্থায় গত ২৯/০৩/২০১৯ইং তারিখে সকাল ১০ ঘটিকার সময় ২য় পক্ষ গণ ১ম পক্ষের অনুপুস্থিতির সুযোগে ১ম পক্ষের মালিকীয় দখলীয় ভূমি হইতে উচ্ছেদ করার লক্ষ্যে বিল্ডিং নির্মাণের উদ্দেশ্যে মাটি খনন প্রস্তুতি নিলে ১ম পক্ষ ঘটনাস্থলে আসিয়া বাধা প্রদান করিলে ২য় পক্ষগণ জোর পূর্বক মাটি খনন করিয়া ও হুমকি দমকি প্রদান করিয়া জবর দখল করার চেষ্টা চালায়। এমতাবস্থায় ১ম পক্ষ আরিফুর রহমান ঘটনাটি এলাকার সকলের কাছে জানান ও কোর্টের মাধ্যমে একটি মামলা দায়ের করেন। তিনি স্থানীয় পুলিশের সহযোগিতা চান এবং ঘটনাস্থলে পুলিশ এসে সত্যতা খুজে দেখেন ও ২য় পক্ষকে সমাধান না হওয়া পর্যন্ত কাজ বন্ধ রাখার নির্দেশ দেন। কিন্তু ২য় পক্ষ কাজ বন্ধ রাখেননি। এমতাবস্থায় আরিফুর রহমানের কোর্টে করা মামলা সমাধান না হওয়া পর্যন্ত কাজ বন্ধ রাখার নির্দেশ ও কারণ দর্শানোর নোটিশ প্রদান করা হয়। ২য় পক্ষ কোনো কিছুরই পরওয়া করছে না। আরিফুর রহমান এই ঘটনার তীব্র নিন্দা জানান। জোরপূর্বক বাড়ী করার তীব্র প্রতিবাদ জানায়। এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন ও প্রশাসনের সহযোগিতা কামনা করছেন।

46,658 total views, 1 views today

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

প্রকাশিত সংবাদ বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি,পাঠকের মতামত বিভাগে প্রচারিত মতামত একান্তই পাঠকের,তার জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়।

Developed By H.m Farhad

Skip to toolbar