,


সংবাদ শিরোনাম:
«» কুমিল্লা জেলার ১১ ক্যাটাগরিতে ৮ পুলিশ কর্মকর্তার সাফল্য অর্জন।  «» পীর কাশিমপুরে জনসচেতনতামূলক ক্যাম্পেইন «» ”কুমিল্লা মুরাদনগরের মাদ্রাসা ছাত্র রহমতুল্লাহ ৫ দিন ধরে নিখোঁজ” «» নির্বাচিত হলে সমস্যা সমাধানের সর্বাত্মক চেষ্টা করবো ৪৭ নম্বর ওয়ার্ডের হেলাল তালুকদার «» ধানের শীষের প্রার্থীর পক্ষে গণজোয়ার দেখতে পাচ্ছি «» উওরার রাজপথে আফছার খানের প্রচারনায়,আবারো নির্বাচিত হবে বিপুল ভোটে… «» জাপার যুগ্ম মহাসচিব ফেরারি ফাঁসির আসামি-টঙ্গীতে নানা রকম ফেসবুকে ঝড় ? «» দুই সিটি ভোট কেন্দ্রের তালিকা প্রকাশ «» কুমিল্লায় শীতকালীন ক্রীড়া প্রাতিযোগিতার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে শিক্ষামন্ত্রী- ডা: দিপু মনি। «» দুই সিটি নির্বাচনের নতুন তারিখ ১ ফেব্রুয়ারি

দীর্ঘ ৪৮ বছরেও নির্মাণ হয়নি ব্রিজ

              দুর্ভোগে ২৫ গ্রামের লাখো মানুষ

নওগাঁর রাণীনগরের বোদলা-সান্দিড়া খেয়াঘাটে দীর্ঘ ৪৮ বছরেও নির্মাণ হয়নি ব্রিজ। ফলে ওই এলাকার দু’পারের প্রায় ২৫ গ্রামের লাখো মানুষ ভাগ্য উন্নয়ন বঞ্চিত হয়ে পড়েছেন। এছাড়া একটিমাত্র ব্রিজের অভাবে প্রায় ২৫ কিলোমিটার রাস্তা পারি দিয়ে সান্তাহার শহরে যাতায়াত করতে হচ্ছে।

এলাকাবাসী জানান, ওই স্থানে ব্রিজ নির্মাণ হলে একদিকে যেমন মানুষ দুঃখ-দুর্দশা থেকে মুক্তি পাবে, অন্যদিকে খুলে যাবে ব্যবসা বাণিজ্যসহ ভাগ্য উন্নয়নের দ্বার।

জানা গেছে, রাণীনগর উপজেলার রাণীনগর-আবাদপুকুর মেইন রাস্তা থেকে বেলঘড়িয়ারার ভেতর দিয়ে বোদলা থেকে রক্তদহ বিলের মধ্য দিয়ে বগুড়ার আদমদীঘি উপজেলার সান্দিরা-সান্তাহারের সাথে যুক্ত হয়েছে। ওই রাস্তা দিয়ে বোদলা, পালশা, বিলকৃষ্ণপুর, সরকাটিয়া, তেবারিয়াসহ বিল পারের ২৫/৩০ গ্রামের লাখো মানুষ চলাচল করে। কিন্তু রক্তদহ বিলের মধ্যে বোদলা-সান্দিড়া রাস্তার মাঝখানে খাল বয়ে যাওয়ায় দু’পারে ভাগ হয়ে গেছে। ফলে পারঘাটে দু’পারের মানুষজন এসে ঘণ্টার পর ঘণ্টা অপেক্ষা করে নৌকাতেই পারা-পার হতে হয়। এ সময় অনেকে আবার সময় বাঁচাতে নৌকার অপেক্ষা না করে জীবনের ঝুঁকি নিয়ে সাঁতার দিয়ে এই বিল পার হয়ে থাকেন। খড়া মৌসুমে ওই স্থানে প্রায় হাটু পানি থাকে। ওই সময় নৌকা চলে না। ফলে অনেকেই পানি ঝাপিয়ে পার হন।

এছাড়াও বর্ষা মৌসুমে এলাকার লাখো মানুষ নৌকায় জীবনের ঝুঁকি নিয়ে পারাপার হয়ে ব্যবসা-বাণিজ্য, শিক্ষা, চিকিৎসাসহ দৈনন্দিন জীবনের নানা চাহিদা মেটানোর জন্য নওগাঁ জেলা সদর, বগুড়ার সান্তাহার জংশন শহরসহ দেশের অন্যান্য শহরের সাথে একমাত্র যোগাযোগের রাস্তা বোদলা-সান্দিড়া খেয়াঘাট অতিক্রম করে। বর্ষা মৌসুম শরু হলেই ভুক্তভুগিদের মাঝে নেমে আসে দুর্ভোগ। এ অবস্থা থেকে রেহাই পেতে ভুক্তভুগীরা স্থানীয় এমপি ও মন্ত্রীদের দ্বারস্থ হয়েও কোনো ফল পাচ্ছে না। নির্বাচন এলেই এলাকার চেয়ারম্যান ও এমপি প্রার্থীরা উক্ত খেয়াঘাটে ব্রিজ করার প্রতিশ্রুতি দিলেও স্বাধীনতার দীর্ঘ ৪৮ বছরেও ওই স্থানে ব্রীজ নির্মাণ হয়নি।

বোদলা গ্রামের বাসিন্দা সাইদুর রহমান ও ওই এলাকার ছামছুর রহমান, হাফিজুর রহমান, নায়েব আলীসহ অনেকেই জানান, একটি ব্রিজের অভাবে এপারের মানুষ ওপারে যেতে চরম কষ্ট করে। এখানে শুধু একটি ব্রিজের কারণে দু’পারের মানুষের মাঝে আত্মীয়তার বন্ধনও তৈরি করতে চায় না। বোদলা-সান্দিড়া পারঘাটে ব্রিজ নির্মাণ হলে দু’পারের মানুষের মাঝে যেমন সেতুবন্ধন তৈরি হবে তেমনি খুলে যাবে ব্যবসা বাণিজ্যসহ ভাগ্য উন্নয়নের দ্বার।

রাণীনগর উপজেলা প্রকৌশলী সাইদুর রহমান মিঞা বলেন, ইতোমধ্যে বোদলা-সান্দিড়া পারঘাটে ব্রিজ নির্মাণের অনুমোদন হয়েছে অল্প দিনের মধ্যে সকল প্রস্তুতি সম্পণ করে কাজ শুরু করা হবে।

( আবডেট= মুহাম্মাদ মহাসিন )

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

প্রকাশিত সংবাদ বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি,পাঠকের মতামত বিভাগে প্রচারিত মতামত একান্তই পাঠকের,তার জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়।

Developed By H.m Farhad