,


সংবাদ শিরোনাম:

পল্লীবন্ধু হুসেইন মুহম্মদ এরশাদকে অক্সিজেন সাপোর্ট দেয়া হয়েছে-গোলাম মোহাম্মদ কাদের এমপি

জাতীয় পার্টির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান গোলাম মোহাম্মদ কাদের এমপি বলেছেন, সাবেক রাষ্ট্রপতি, সংসদে বিরোধী দলীয় নেতা এবং জাতীয় পার্টির চেয়ারম্যান পল্লীবন্ধু হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ-এর শারীরিক অবস্থা গতকালের থেকে আজ সকালে কিছুটা অবনতি হলে তাকে অক্সিজেন সাপোর্ট দেয়া হয়েছে। তিনি বলেন, পল্লীবন্ধুর ফুসফুসে পানি জমার কারণে সকাল থেকেই তার কিছুটা শ^াস কষ্ট হচ্ছিলো। যে কারণে অক্সিজেন সাপোর্ট দেয়া হয়েছে পল্লীবন্ধুকে। গেলো ২৭ জুন সকালে পল্লীবন্ধু অসুস্থ্যবোধ করলে তাঁকে সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। পল্লীবন্ধুর শরীরের বিভিন্ন অঙ্গ প্রত্যঙ্গে কিছু সংক্রমণের চিকিৎসা চলছে। তিনি বলেন, সিএমএইচ-এর চিকিৎসকরা অত্যন্ত আন্তরিকতার সাথে পল্লীবন্ধুর চিকিৎসা দিচ্ছেন। চিকিৎসকরা মনে করছেন, হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের চিকিৎসা সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালেই সম্ভব। তবে, চিকিৎসকরা পরামর্শ দিলে হুসেইন মুহম্মদ এরশাদকে উন্নত চিকিৎসা দেয়ার জন্য পৃথিবীর যে কোন দেশেই পাঠানোর প্রস্তুতি আছে আমাদের। গোলাম মোহাম্মদ কাদের এমপি বলেন, সাবেক রাষ্ট্রপতি ও বিরোধী দলীয় নেতা হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ-এর চিকিৎসার সকল ব্যয় সরকারের পক্ষ থেকে বহন করা হচ্ছে। সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে গোলাম মোহাম্মদ কাদের এমপি বলেন, হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ সব সময় সিএমএইচ-এর চিকিৎসায় আস্থা রেখেছেন। আমরাও সিএমএইচ-এর চিকিৎসায় সন্তুষ্ট। সাবেক রাষ্ট্রপতি হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের রোগমুক্তি ও সুস্থ্যতা কমনায় দেশবাসীর প্রতি দোয়া কামনা করেছেন জাতীয় পার্টির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান গোলাম মোহাম্মদ কাদের এমপি।
আজ সন্ধ্যা ৬টায় জাতীয় পার্টি চেয়ারম্যানের বনানী কার্যালয়ে পল্লীবন্ধু হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ-এর শারীরিক অবস্থার সর্বশেষ পরিস্থিতি নিয়ে সংবাদ ব্রিফিংকালে জাতীয় পার্টির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান গোলাম মোহাম্মদ কাদের এমপি এ কথা বলেন।
সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে জাতীয় পার্টির মহাসচিব মসিউর রহমান রাঙ্গা এমপি বলেন, বাজেট অধিবেশনে পল্লীবন্ধুর চিকিৎসা ব্যয় নিয়ে তার বক্তব্য ভূল ভাবে উপস্থাপন করা হয়েছে। মসিউর রহমান রাঙ্গা এমপি বলেন, হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ ক্ষমতা ছেড়ে দেয়ার পর তাকে দুর্নীতিবাজ প্রমাণ করতে ঐ সময় বিএনপি সরকার দেশী-বিদেশী বিভিন্ন সংস্থাকে নিয়োজিত করেছিলো। কিন্তু তারা পল্লীবন্ধুকে দুর্নীতিবাজ প্রমাণ করতে ব্যার্থ হয়েছে। পল্লীবন্ধু কখনই দুর্নীতি করেননি। তিনি বলেন, প্রয়োজন হলে জাতীয় পার্টির নেতা-কর্মীরা তাদের শেষ সম্বল বিক্রি করে হুসেইন মুহম্মদ এরশাদের চিকিৎসা ব্যয় বহন করবে।
এসময় উপস্থিত ছিলেন- প্রেসিডিয়াম সদস্য- সৈয়দ আবু হোসেন বাবলা এমপি, সুনীল শুভ রায়, শফিকুল ইসলাম সেন্টু, এ্যাড. রেজাউল ইসলাম ভূঁইয়া, আলমগীর সিকদার লোটন, ভাইস চেয়ারম্যান- সালাউদ্দিন আহমেদ, মোস্তাকুর রহমান মোস্তাক, জহিরুল আলম রুবেল, যুগ্ম মহাসচিব- হাসিবুল ইসলাম জয়, মনিরুল ইসলাম মিলন, আদেলুর রহমান এমপি, এস.এম. ইয়াসির, সম্পাদক মন্ডলীর মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- ফখরুল আহসান শাহজাদা, মাতলুব হোসেন লিয়ন, মোঃ হেলাল উদ্দিন, মাহামুদা রহমান মুন্নি, এম.এ. রাজ্জাক খান, কাজী আবুল খায়ের, এম.এ. সাত্তার, মাখন সরকার, কেন্দ্রীয় নেতা- এনাম জয়নাল আবেদীন, মিজানুর রহমান দুলাল, ফজলে এলাহী সোহাগ, এ্যাড. আবু তৈয়ব, মোঃ মিজানুর রহমান, এস.এম.এম. সেলিম প্রমুখ নেতৃবৃন্দ। 
প্রেস বিজ্ঞপ্তি
ঢাকা,রবিবার, ৩০ জুন ২০১৯ :
বার্তা প্রেরক
এম এ রাজ্জাক খান
যুগ্ম দফতর সম্পাদক
জাতীয় পা‌র্টি ।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

প্রকাশিত সংবাদ বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি,পাঠকের মতামত বিভাগে প্রচারিত মতামত একান্তই পাঠকের,তার জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়।

Developed By H.m Farhad