,


সংবাদ শিরোনাম:
«» বরুড়ায় সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের ছাদ ধষে পড়ে শিক্ষিকা আহত «» বরুড়ায় পলাতক মাদক ব্যবসায়ীর বাসার মালামাল ক্রোক «» অসহায় মানুষের পাশে বরুড়া শহীদ স্মৃতি সরকারি কলেজ শাখা ছাত্রলীগ «» ঢাকা মেট্রোপলিটন ডিএমপি’র অপরাধ পর্যালোচনা সভায় পুরস্কৃত হলেন যারা «» মাদক সেবন,বিক্রেতা,আশ্রয় ও প্রশ্রয়কারী কাউকে ছাড় দেয়া হবে না-পুলিশ সুপার মিজানুর রহমান «» ভালো-মন্দের এফডিসি «» তোতা কাহিনী,গল্পের বই প্রকাশিত বইমেলায়-লেখক আমিনুল ইসলাম মামুন «» কুমিল্লা জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপারের সাথে সিআরইউ নেতৃবৃন্দের মতবিনিময় «» দেশের বড় বড় ব্যবসায়ী গ্রুপ এখন অনেক গণমাধ্যম প্রতিষ্ঠানের মালিক:বাংলাদেশ প্রেস কাউন্সিল পদক প্রদান অনুষ্ঠানে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ «» ঢাকা জেলা জাতীয় পার্টির পূর্ণাঙ্গ কমিটি ঘোষণা,সভাপতি সালমা ইসলাম-সম্পাদক ইমতিয়াজ

পল্লীবন্ধু হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদ- ইসলামের কথা বলে দেশের

সাবেক প্রেসিডেন্ট পল্লীবন্ধু হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদ ক্ষমতায় থাকাকালীন রাষ্ট্রধর্ম ইসলাম ঘোষনা সহ দেশের আলেম সমাজ কে রাষ্ট্রীয় ভাবে যেরকম মুল্যায়ন করেছেন আর কোন সরকার এরকম মুল্যায়ন করেন নি– ক্ষমতার বাহিরে এসেও দেশের আলেম সমাজকে একমাত্র এরশাদ’ই মুল্যায়ন করে থাকেন–

নির্বাচন আসলেই বড় দলগুলো ইসলামের কথা বলে দেশের আলেম সমাজের বিশাল সমর্থন নিয়ে ক্ষমতায় যায়, ক্ষমতায় গিয়ে’ই দেশের আলেম সমাজ এবং মাদ্রাসা শিক্ষাকে জঙ্গিবাদ বলার চেষ্টা করে –?

ধর্ম বিষয়ে পল্লীবন্ধু হুসেইন মুহাম্মদ এরশাদের অবদান ইতিহাসে সত্যি’ই নজিরবিহীন।

১৯৯০ সালের পর এরশাদ পরবর্তি ২৭ বছরে দুই নেত্রী বার বার ক্ষমতায় ছিলেন, রাষ্ট্রীয় ভাবে দেশে ধর্ম বিষয়ে তারা কি করেছেন –? বরং যখন এরশাদ ইসলাম কে রাষ্ট্রধর্ম ঘোষণা করেছিলেন তখন খালেদা জিয়া ও শেখ হাসিনা এর প্রতিবাদ করেছিলেন।

* পল্লীবন্ধু এরশাদ ইসলামকে রাষ্ট্রধর্ম ঘোষনা করে এক যুগান্তকারী পদক্ষেপ নিয়েছেন।

* পল্লীবন্ধু এরশাদ বাংলাদেশের সংবিধানে বিসমিল্লাহ সংযুক্ত করেছিলেন।

* শুক্রবার সরকারী ছুটি করছেন পল্লীবন্ধু এরশাদ।

* পল্লীবন্ধু এরশাদ রেডিও-টিভিতে আজান
প্রচারের পদক্ষেপ নিয়েছেন।

* পল্লীবন্ধু এরশাদ বায়তুল মোকাররম
মসজিদের নব-রূপায়ন এবং সংষ্কার করেছেন।

* পল্লীবন্ধু এরশাদ হিন্দুদের পবিত্র তীর্থস্থান লাঙ্গলবন্দে ৫০ লক্ষ টাকা খরচ করে ঘাট তৈরী করেছেন। পানি এবং অন্যান্য সুযোগ সুবিধাসহ বিশ্রাম করার জন্য সেড তৈরী করেছেন।

* পল্লীবন্ধু এরশাদ রাজধানীতে নতুন মসজিদ করেছেন ৬টি।
১/গুলশানে হযরত আব্দুল
কাদের জিলানী (রাঃ) মসজিদ,
২/গোলাপশাহ মসজিদ,
৩/নিউ মার্কেট মসজিদ,
৪/সাভার মসজিদ,
৫/ পি ডব্লিউ ডি মসজিদ
৬/ এবং বেইলী রোড অফিসার্স কলোনী মসজিদ।

এছাড়া কোটি কোটি টাকা ব্যয়ে সংষ্কার করেছেন লালবাগ শাহী মসজিদ,বেগম বাজার মসজিদ, তারা মসজিদ, সাত গম্বুজ মসজিদ, ডিআইটি মসজিদ সহ সারা দেশের অসংখ্য মসজিদ।

* পল্লীবন্ধু এরশাদ হাইকোর্টের সামনে পুকুর ভরাট করে তৈরী করেছেন প্রথম জাতীয় ঈদগাহ।

* পল্লীবন্ধু এরশাদ সকল মসজিদ, মন্দির,গীর্জা এবং বৌদ্ধ মঠের পানি ও বিদ্যুৎ বিল স্থায়ীভাবে মওকুফ করেছেন।

* পল্লীবন্ধু এরশাদ জন্মাষ্টমীর দিন জাতীয় ছুটি ঘোষনা করেছেন।

* পল্লীবন্ধু এরশাদ গঠন করেছেন হিন্দু ধর্মীয় কল্যান ট্রাষ্ট এবং বৌদ্ধ ধর্মীয় কল্যান ট্রাষ্ট গঠন করেছেন —-

——————-

(ছবিটি, পল্লীবন্ধু ক্ষমতায় থাকাকালীন পত্রিকায় প্রকাশিত একটি দুর্লভ বক্তব্য সম্বলিত ছবি)

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

প্রকাশিত সংবাদ বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি,পাঠকের মতামত বিভাগে প্রচারিত মতামত একান্তই পাঠকের,তার জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়।
Skip to toolbar