,


সংবাদ শিরোনাম:

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্ণামেন্টের ফাইনাল খেলা শেষে পুরস্কার বিতরন অনুষ্ঠান

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্ণামেন্টের ফাইনাল খেলা শেষে পুরস্কার বিতরন অনুষ্ঠা
রুবেল মাদবর, মুন্সীগঞ্জ প্রতিনিধিঃ
মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী ফজিলাতুন নেসা ইন্দিরা বলেছেন, জিয়াউর রহমান মদের লাইসেন্স দিয়ে দেশের যুব সমাজকে ধ্বংস করেছেন। জিয়াউর রহমান মদের লাইসেন্স দিয়ে দেশের যুব সমাজকে ধ্বংস করেছেন। আর মাদক নির্মূলে জননেত্রী শেখ হাসিনার সরকার নিরলস কাজ করে যাচ্ছেন। শুধু তাই নয়, জিয়াউর রহমানের আমলে দেশের শিক্ষার অবস্থা ছিল নাজুক, ছিল সেশন জট। এ সেশন জটের কারনে শিক্ষা ব্যবস্থা পিছিয়ে পড়েছিল তার ভুক্তভোগী আমি নিজেও। বর্তমান সরকার শিক্ষা ও ক্রীড়া বান্ধব সরকার। ক্রীড়া উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছে এ সরকার। ক্রীড়াঙ্গনে আর্ন্তজাতিক পর্যায়ে ব্যাপক সফলতা রয়েছে সরকারের। আমাদের দেশের মেয়েরা খেলা ধূলায় ভালো করছে। দেশ আজ উন্নয়নের মহাসড়কে। শেখ হাসিনার সরকার উন্নয়নের সরকার। তিনি আরো বলেন মুন্সীগঞ্জে উন্নয়নের জন্য যা করা দরকার সবই করা হবে। সবার সহযোগীতায় সুন্দর মুন্সীগঞ্জ গড়ে তোলা হবে।
তিনি গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে মুন্সীগঞ্জ সদরের মিরকাদিম পৌরসভার গ্রীন ওয়েল ফেয়ার মাঠে জেলা প্রশাসন ও জেলা ক্রীড়া অফিসের আয়োজনে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও বঙ্গমাতা শেখ ফজিলাতুন্নেছা মুজিব জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্ণামেন্টের ফাইনাল খেলা শেষে পুরস্কার বিতরন অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তবে এ সব কথা বলেন। জেলা প্রশাসক মো. মনিরুজ্জামান তালুকদারের সভাপতিত্বে অন্যদের মধ্যে বক্তৃতা করেন- গোপালগঞ্জের সংরক্ষিত মহিলা আসনের এমপি নার্গিস রহমান, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. মোস্তাফিজুর রহমান, স্থানীয় সরকারের উপ-পরিচালক এসএম সফিক, সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আনিস-উজ-জামান আনিস, মিরকাদিম পৌরসভার মেয়র শহিদুল ইসলাম শাহিন, জেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম-সম্পাদক অ্যাডভোকেট সোহানা তাহমিনা ,অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন খাদিজা পারভিন, ক্রীড়া ব্যাক্তিত্ব আয়নাল হক স্বপন প্রমুখ।এর আগে মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী ফজিলাতুন নেসা ইন্দিরা মঙ্গলবার দুপুরে মুন্সীগঞ্জ মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তর পরিদর্শন করেন। এ সময় মহিলা প্রশিক্ষন কেন্দ্রের নারীদের প্রশিক্ষন বিষয়ে নানা সমস্যা-সফলতার গল্প শুনেন। পরে জেলা প্রশাসনের আয়োজনে জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে এক সভা অনুষ্ঠিত হয়। এ সময় নিবন্ধনকৃত স্বেচ্ছাসেবী মহিলা সমিতির ২৮ জন নারীকে ৫ লাখ ৮৫ হাজার টাকা অনুদান প্রদান করেন। অনুষ্ঠানে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, গোপালগঞ্জ জেলার সংরক্ষিত আসনের সংসদ সদস্য নার্গিস রহমান, মহিলা বিষয়ক অধিদপ্তরের মহাপরিচালক বদরুন নেছা, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. মোস্তাফিজুর রহমান, মিরকাদিম পৌরসভার মেয়র শহিদুল ইসলাম শাহীন, জেলা মহিলা বিষয়ক কর্মকর্তা আলেয়া বেগম প্রমুখ। এসময় দুজন মহিলা উদ্যোক্তা সোহানা মহিউদ্দিন ও কাউন্সিল নার্গিস আক্তার তাদের কথা তুলে ধরে বক্তব্য রাখেন, আরো উপস্থিত ছিলেন রামপাল ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান মো. বাচ্চু শেখ, বর্ণালী স্যাটালাইট চেয়ারম্যান মো. বাবুল আহেম্মদ প্রমূখ।

 

2,345 total views, 3 views today

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

প্রকাশিত সংবাদ বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি,পাঠকের মতামত বিভাগে প্রচারিত মতামত একান্তই পাঠকের,তার জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়।

Developed By H.m Farhad

Skip to toolbar