,


সংবাদ শিরোনাম:

বরুড়া উপজেলাকে কুমিল্লা জেলায় রেখে কুমিল্লা বিভাগ ঘোষণা করার দাবিতে মানববন্ধন ও গণস্বাক্ষর কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়েছে।

বরুড়া উপজেলাকে কুমিল্লা জেলায় রেখে কুমিল্লা বিভাগ ঘোষণা করার দাবিতে মানববন্ধন ও গণস্বাক্ষর কর্মসূচি অনুষ্ঠিত হয়েছে। কুমিল্লা বিভাগ হতে গেলে প্রয়োজন কমপক্ষে পাঁচটি জেলার। কিন্তু কুমিল্লা বিভাগের রুপরেখা অনুযায়ী বর্তমানে এর অন্তর্ভূক্ত হবে এমন জেলা আছে চারটি । প্রয়োজন নতুন একটি জেলার। বর্তমানে কুমিল্লা বিভাগের অধীনে প্রস্তাবিত জেলাগুলো হল, কুমিল্লা, চাঁদপুর, নোয়াখালী ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া।

আর, এই প্রস্তাবনাকে কেন্দ্র করে নতুন করে জেলা হতে যাচ্ছে লাকসাম। নতুন করে হতে যাওয়া এই জেলায় মোট পাঁচটি উপজেলার সমন্বয়ে হতে যাচ্ছে। প্রাথমিকভাবে এই পাঁচটি উপজেলা হচ্ছে লাকসাম, নাঙ্গলকোট, শাহরাস্তি, মনোহরগঞ্জ ও বরুড়া।কিন্তু বরুড়াবাসী থাকতে চায় না গঠিত হতে যাওয়া লাকসাম জেলায়। এ লক্ষ্যে
গতকাল বরুড়া উপজেলা সদরে জিপিও এর সামনে আমরা বরুড়াবাসী নামীয় একটি সংগঠনের উদ্যোগে বরুড়া বাজার ব্যবসায়ী সমিতি, বিভিন্ন বিদ্যালয়ের শিক্ষক-শিক্ষার্থী, বিভিন্ন স্বেচ্ছাসেবী সংগঠনের সার্বিক সহযোগীতায় সকাল দশটায় হাজার হাজার জনসাধারনের অংশগ্রহণে এই মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়।মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন বরুড়াবাসী সংগঠনের সম্মানিত আহবায়ক -সমাজকর্মী রোটাঃবশিরুল ইসলাম সিরাজী
উপস্থিত ছিলেন-মানবাধিকার কর্মী আসাদুজ্জান জুয়েল,রোটা.ওমর ফারুক,আলহাজ্ব মমিন সওদাগর,কমিশনার রেহানা পারভীন,সামশুন নাহার,বরুড়া ব্লাড ব্যাংক প্রতিষ্টাতা ফারভেজ গাজী,সমাজকর্মী মোশারফ হোসেন, শাকপুর ইউনিয়ন অনলাইন ব্লাড ব্যাংকের সভাপতি গাজী শরীফুল ইসলাম সহ নোয়াপাড়া নিউ এডুকেশন সোসাইটি,শাকপুর ইউনিয়ন অনলাইন ব্লাড ব্যাংক & ডোনার ক্লাব,রাজাপুর এইড কমিউনিটি,বরুড়া ব্লাড ব্যাংক,জীবন শৈলী,জাগো দেওড়া,গামারুয়া সমাজ কল্যান পরিষদ সহ বহু সংগঠনের সদস্য ও আপামর বরুড়ার কয়েকশত জনসাধারন।এই সময় আমরা বরুড়াবাসী সংগঠনের সম্মানিত আহবায়ক -সমাজকর্মী রোটাঃবশিরুল ইসলাম সিরাজী
বলেন ‘বরুড়াকে কুমিল্লা জেলা থেকে বাদ দিয়ে অন্য কোনো নতুন জেলায় অন্তর্ভূক্তি করা যাবে না এবং কুমিল্লা বিভাগ হলে কুমিল্লা জেলার অধীনে থেকে বরুড়া উপজেলার সকল কার্যক্রম করা হোক। প্রয়োজনে, বরুড়া উপজেলাকে নতুন জেলা হিসেবে ঘোষণা দেয়া হোক। তবুও আমরা অন্য জেলায় যেতে চাই না।

সামাজিক ব্যাক্তিত্ব আলহাজ্ব মোঃ আব্দুল মমিন সওদাগর বলেন, ‘বরুড়াকে নব্য গঠিত হতে যাওয়া লাকসাম জেলার অধীনে নেওয়ার পাঁয়তারা চলছে, এমন কিছু হলে তীব্র আন্দোলন করা হবে। কুমিল্লা আমাদের প্রাণের স্পন্দন।মানববন্ধন শেষে সবাই সম্মিলিত উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা অফিসে গিয়ে উপজেলা নির্বাহী অফিসার জনাব, মাজহারুল ইসলাম স্যারের  হাতে একটি লিখিত স্বরলিপি ও গণস্বাক্ষরের ফরম জমা দেয় আমরা বরুড়াবাসী কমিটি বৃন্দু।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

প্রকাশিত সংবাদ বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি,পাঠকের মতামত বিভাগে প্রচারিত মতামত একান্তই পাঠকের,তার জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়।

Developed By H.m Farhad

Skip to toolbar