ভারতে যাওয়া রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দেওয়ার দাবি

মিয়ানমারের রোহিঙ্গা মুসলিমদের ভারতে আশ্রয় দান ও গণহত্যা বন্ধের দাবিতে কলকাতার পার্ক সার্কাস থেকে ধর্মতলা পর্যন্ত মিছিলের একাংশ। ছবি: ভাস্কর মুখার্জিভারতে যাওয়া মিয়ানমারের রোহিঙ্গা মুসলিমদের আশ্রয় দেওয়ার দাবিতে কলকাতায় মিছিল ও প্রতিবাদ সভা করেছে বিভিন্ন মুসলিম সংগঠন। একই সঙ্গে সংগঠনগুলো মিয়ানমারের রোহিঙ্গা মুসলিমদের গণহত্যা অবিলম্বে বন্ধের দাবি জানিয়েছে।

আজ সোমবার বিকেলে কলকাতার পার্ক সার্কাস থেকে এই মিছিল শুরু হয়। মিছিল শেষে ধর্মতলার রানি রাসমণি অ্যাভিনিউয়ে প্রতিবাদ সভা হয়। এ সময় প্রতিবাদকারীরা কলকাতায় মিয়ানমার কনস্যুলেট অফিসে স্মারকলিপি জমা দিয়েছেন। আয়োজন সংগঠনগুলোর মধ্যে ছিল জামায়াতে ইসলামি হিন্দ, সংখ্যালঘু যুব ফেডারেশন, মোজাদ্দেদিয়া অনাথ ফাউন্ডেশন ও জমিয়তে ওলামায়ে বাংলা।

প্রতিবাদ সভায় জামায়াতে ইসলামি হিন্দের রাজ্য সভাপতি মোহাম্মদ নুরুদ্দিন বলেন, মিয়ানমারে রোহিঙ্গা গণহত্যা অবিলম্বে বন্ধ করতে হবে। ভারতে যাঁরা জীবনের ঝুঁকি নিয়ে আশ্রয় নিয়েছেন, তাঁদের পুনর্বাসন করতে হবে। এখানে বসবাসের অধিকার দিতে হবে। তিনি রোহিঙ্গাদের নাগরিকত্ব দেওয়ারও দাবি জানিয়েছেন।

ভাস্কর মুখার্জিবক্তারা বলেন, মিয়ানমারে রোহিঙ্গা মুসলিমদের ওপর যেভাবে গণহত্যা চালানো হচ্ছে, তা মানবাধিকার লঙ্ঘনের শামিল। আন্তর্জাতিক মহল ও প্রতিবেশী দেশগুলো যেভাবে মুখে কুলুপ এঁটেছে, তা অত্যন্ত নিন্দনীয়। আজকে যারা এই গণহত্যার সঙ্গে জড়িত, তাদের আন্তর্জাতিক আদালতে বিচার করতে হবে। কেড়ে নিতে হবে শান্তির জন্য অং সান সু চির পাওয়া নোবেল পদক।

প্রতিবাদ সভায় আরও বক্তব্য দেন রাজ্য সংখ্যালঘু যুব ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক মো. কামরুজ্জামান, মোজাদ্দেদিয়া অনাথ ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান ত্বহা সিদ্দিক, জমিয়তে ওলামায়ে বাংলার সভাপতি বাহাউদ্দিন সিদ্দিকি প্রমুখ।

এর আগে বিকেলে কলকাতায় মিয়ানমারের কনস্যুলেট অফিসে বিভিন্ন দাবিসংবলিত একটি স্মারকলিপি জমা দেওয়া হয়।

৭ সেপ্টেম্বর কলকাতায় স্টুডেন্টস ইসলামিক অর্গানাইজেশন অব ইন্ডিয়া বা এসআইও পশ্চিমবঙ্গ শাখাও মিয়ানমারে রোহিঙ্গা গণহত্যার প্রতিবাদে মিছিল ও প্রতিবাদ সভার আয়োজন করে।

সূত্রঃ দৈনিক প্রথম আলো






Related News

  • শান্তিতে নোবেলের অংশীদার বাংলাদেশের দুই সংগঠন
  • আইএসআই’র নিজস্ব পররাষ্ট্রনীতি রয়েছে: অভিযাগ যুক্তরাষ্ট্রের
  • মুসলিম নয় বলেই লাস ভেগাসের হত্যাকারীকে ‘সন্ত্রাসী’ বলা হচ্ছে না!
  • হত্যাকারী খ্রিস্টান, দায় নিল আই.এস!
  • রক্তাক্ত লাস ভেগাস, দায় স্বীকার আই.এস এর, নাকচ করল এফ বি আই
  • ওপাড়ে লক্ষ লক্ষ ক্ষুধার্ত মানুষ, পালিয়ে আসছে বাংলাদেশে!
  • অবসরপ্রাপ্ত ভারতীয় সেনাকে পুলিশ বলছে ‘বাংলাদেশি অভিবাসী’
  • রোহিঙ্গাদের দুচোখ দিয়ে দেখতে আসছেন কান্ডারী দূত!
  • Leave a Reply

    Your email address will not be published. Required fields are marked *