,


সংবাদ শিরোনাম:

সম্প্রচারের অপেক্ষায় ১১টি বেসরকারি টিভি

নিউজ ডেস্ক : বর্তমানে বিশ্বের ১৪টি দেশে বিটিভি সম্প্রচার হচ্ছে এবং আইপিটিভির মাধ্যমে বিশ্বের সবদেশেই বিটিভি দেখার সুযোগ রয়েছে বলে জানিয়েছেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। পাশাপাশি ১১টি বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেল সম্প্রচারের অপেক্ষায় রয়েছে বলে তিনি জানান।

সোমবার (১১ নভেম্বর) জাতীয় সংসদের অধিবেশনে মন্ত্রীদের জন্য প্রশ্নোত্তর পর্বে আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য মোহাম্মদ সহিদুজ্জামান সরকার এবং আহসানুল ইসলামের (টিটো) প্রশ্নের জবাবে তথ্যমন্ত্রী এ তথ্য জানান।

ড. হাছান মাহমুদ জানান, বাংলাদেশের বাইরে ভারত, আফগানিস্তান, পাকিস্তান, নেপাল, মিয়ানমার, ভুটান, শ্রীলংকা, ইন্দোনেশিয়া, ফিলিপাইনস, কিরগিস্তান, তাজিকিস্তান, তুর্কমিনিস্তান, উজবেকিস্তান, কাজাকিস্তানে বাংলাদেশ টেলিভিশন সম্প্রচার হচ্ছে। এছাড়া আইপিটিভির মাধ্যমে বিশ্বের প্রায় সব দেশেই বিটিভি দেখার সুযোগ রয়েছে।

আহসানুল ইসলামের প্রশ্নের জবাবে তথ্যমন্ত্রী জানান, বর্তমানে ৪৫টি বেসরকারি চ্যানেলকে অনুমতি দেওয়া হয়েছে। এর মধ্যে পূর্ণ সম্প্রচারে আছে ৩০টি। এছাড়া ১১টি চ্যানেল সম্প্রচারের অপেক্ষায় আছে এবং ৩টি ফ্রিকোয়েন্সি পায়নি।

মন্ত্রীর তথ্য থেকে জানা গেছে অপক্ষায় থাকা টিভি চ্যানেলগুলো হলো- আব্দুল্লাহ আল মামুন কৌশিকের চ্যানেল ২১, মামুনুর রশীদ কিরণের গ্লোব মাল্টিমিডিয়া লিমিটেড, নুর মোহাম্মদের উৎসব, মোহাম্মদ সাইফুল আলমের রংধনু, ধানাদ ইসলাম দীপ্তর তিতাস, তানভির আবিরের খেলা টিভি, জিনাত চৌধুরীর আমার টিভি, মুহম্মদ শফিকুর রহমানের সিটিজেন টিভি, তানজিয়া সিরাজের প্রাইম টিভি, শীলা ইসলামের স্পাইস টিভি ও আবুল বাশার মোহাম্মদ রকিবুল বাসেতের টিভি টুডে।

আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য নুরুন্নবী চৌধুরীর অপর এক প্রশ্নরে উত্তরে হাছান মাহমুদ জানান, সম্প্রচার আইন ২০১৮ (খসড়া) মন্ত্রিসভায় নীতিগত অনুমোদন করা হয়েছে। ভেটিংয়ের জন্য এটি আইন মন্ত্রণালয়ে পাঠানো হয়েছে। এই আইনের আওতায় সম্প্রচার কমিশন গঠন হলে স্যোশ্যাল ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার মাধ্যমের সম্প্রচার নিবিড়ভাবে তদারকি করা সম্ভব হবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

প্রকাশিত সংবাদ বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি,পাঠকের মতামত বিভাগে প্রচারিত মতামত একান্তই পাঠকের,তার জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়।

Developed By H.m Farhad