,


সংবাদ শিরোনাম:

সাব্বিরের শুধরানোর সুযোগ বলে মনে করেন তামিম

সাব্বিরের শুধরানোর সুযোগ বলে মনে করেন তামিম

 

ওপেনিংয়ে তামিমের সঙ্গী সৌম্য সরকার খেলারই সুযোগ পাচ্ছেন না। লিটন দাসের ব্যাটেও রান নেই তেমন। তবুও দু’জনই আছেন নিউজিল্যান্ড সফরে। কিন্তু ওয়ানডে আর টেস্ট দলে জায়গা পাননি ইমরুল কায়েস। আর নিষেধাজ্ঞার খাড়া কাটিয়ে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ওয়ানডে দলে আবার ফিরেছেন সাব্বির রহমান। এ দুটি বিষয় নিয়েই কথা বলেছেন তামিম ইকবাল। তার কাছে ইমরুল কায়েসকে দুর্ভাগাই মনে হয়েছে। আর সাব্বির রহমানের ফেরাটাকে ইতিবাচক চোখেই দেখতে চান তিনি।
ইমরুল কায়েসকে দুর্ভাগা আখ্যা দিয়ে তামিম বলেন, ‘এটা দুর্ভাগ্য।

একটা সিরিজে ৩৫০ রানের ওপরে (জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজে ৩৪৯) করার পরে দুটি ম্যাচে খারাপ করেছে। এতেই নির্বাচিত না হওয়া এটাও মেনে নিতে হবে! ক্রিকেটে এটা হয়, অনেক সময় পজিশন, দলের সমন্বয়ের কারণে সব কিছু মনমতো হয়তো হয় না। তবে নির্বাচক, কোচ কিংবা অধিনায়কের মাথায় হয়তো ইমরুল ছিল। ভাবনায় নিশ্চয়ই কিছু একটা ছিল বলে হয়তো তাকে নেয়া হয়নি। তবে সব সময়ই সুযোগ আসে, আশা করি তখন সেটি লুফে নেবে।’ নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে ওয়ানডে দলে সাব্বির রহমানের অন্তর্ভুক্তি নিয়ে ভালোই বিতর্ক হচ্ছে। অনেকেই নিষেধাজ্ঞার মধ্য থেকেই দলে অন্তর্ভুক্তি স্বাভাবিকভাবে নেননি। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে নিষেধাজ্ঞা কীভাবে এক মাস কমে গেল তার ব্যাখ্যাও সঠিকভাবে দিতে পারেনি বিসিবি। দল ঘোষণার দিনে প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নু সরাসরি বিষয়টা চাপিয়েছেন ওয়ানডে অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজার ওপর। যদিও মাশরাফি বিষয়টি ব্যাখ্যা দিয়েছেন ভিন্নভাবে। ‘দাবি নয়, তাদেরকে (নির্বাচকদের) আমার মতামত জানিয়েছিলাম মাত্র। সেটি নির্বাচকেরা শুনতে পারেন, নাও পারেন। এটা তাদের ব্যাপার’-বলেন টাইগার দলপতি। সাব্বিরের অন্তর্ভুক্তি নিয়ে যা হওয়ার হয়েছে। বাংলাদেশ ওপেনার তামিম ইকবাল এখন তাকাতে চান সামনে। তার আশা, সাব্বির ভবিষ্যতে এমন কিছু করবেন না, যেটি নিয়ে এমন বিতর্ক তৈরি হয়, ‘যেহেতু দল ঘোষণা হয়ে গেছে, সে এখন ১৫ জনের অংশ। তার প্রতি এটাই শুভকামনা থাকবে যে, অতীতে যে সে ভুলগুলো করেছে আশা করি সেটির পুনরাবৃত্তি হবে না। সে নিজেও হয়তো এটা বুঝেছে। ওর সঙ্গে ব্যক্তিগত অনেক কিছু শেয়ার করি। আশা করি সে (সাব্বির) অন্য মানুষ হয়ে ফিরবে। ওর যে দায়িত্ব আছে, শুধু বাংলাদেশের হয়ে খেলাই নয়, খেলোয়াড় হিসেবে যা যা করা দরকার সব পালন করবে।’ বিপিএলের অভিজ্ঞতা নিউজিল্যান্ডে কোনো কাজে দেবে কিনা জানকে চাইলে তামিম বলেন, ফরমেট ভিন্ন হলেও বিপিএলের পারফরমেন্স সবার আত্মবিশ্বাস বাড়াতে পারে। আগেই বললাম, এটা ভিন্ন সংস্করণ। যদি তাসকিনের কথা বলি, ১৭টা উইকেট পেয়ে গেছে। এটা অবশ্যই তাকে আত্মবিশ্বাসী করবে। মুশফিক দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক, এগুলো অবশ্যই আত্মবিশ্বাস দেয়। আপনি কোন সংস্করণ খেলছেন, এটা আমার কাছে গুরুত্বপূর্ণ নয়, আপনি যদি ভালো ব্যাটিং-বোলিং করেন, তবে আপনাকে অবশ্যই সেটি আত্মবিশ্বাস জোগাবে।’

50,294 total views, 1 views today

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

প্রকাশিত সংবাদ বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি,পাঠকের মতামত বিভাগে প্রচারিত মতামত একান্তই পাঠকের,তার জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়।

Developed By H.m Farhad

Skip to toolbar