,


সংবাদ শিরোনাম:
«» কুমিল্লা জেলার ১১ ক্যাটাগরিতে ৮ পুলিশ কর্মকর্তার সাফল্য অর্জন।  «» পীর কাশিমপুরে জনসচেতনতামূলক ক্যাম্পেইন «» ”কুমিল্লা মুরাদনগরের মাদ্রাসা ছাত্র রহমতুল্লাহ ৫ দিন ধরে নিখোঁজ” «» নির্বাচিত হলে সমস্যা সমাধানের সর্বাত্মক চেষ্টা করবো ৪৭ নম্বর ওয়ার্ডের হেলাল তালুকদার «» ধানের শীষের প্রার্থীর পক্ষে গণজোয়ার দেখতে পাচ্ছি «» উওরার রাজপথে আফছার খানের প্রচারনায়,আবারো নির্বাচিত হবে বিপুল ভোটে… «» জাপার যুগ্ম মহাসচিব ফেরারি ফাঁসির আসামি-টঙ্গীতে নানা রকম ফেসবুকে ঝড় ? «» দুই সিটি ভোট কেন্দ্রের তালিকা প্রকাশ «» কুমিল্লায় শীতকালীন ক্রীড়া প্রাতিযোগিতার উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে শিক্ষামন্ত্রী- ডা: দিপু মনি। «» দুই সিটি নির্বাচনের নতুন তারিখ ১ ফেব্রুয়ারি

টেঁটাযুদ্ধ বন্ধের দাবিতে গ্রামবাসী নরসিংদীতে

মামুন মিয়াঃ ‘টেঁটাযুদ্ধ বন্ধ চাই, চরাঞ্চলে শান্তি চাই’ এই স্লোগানকে সামনে রেখে নরসিংদীর মেঘনা নদী বেষ্টিত চরাঞ্চল আলীপুরা গ্রামে মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে।মঙ্গলবার বেলা ১১টার দিকে গ্রামের প্রধান সড়কে আলীপুর গ্রামের সর্বস্তরের ব্যানারে এ মানববন্ধন করা হয়।মানববন্ধনে গ্রামের টেঁটাযুদ্ধ বন্ধের দাবি জানানো হয়। এতে গ্রামের কয়েক শ’ লোক অংশ নেয়।সদর উপজেলার নজরপুর ইউনিয়নের আলীপুরা গ্রামে আধিপত্য বিস্তার নিয়ে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শাহজাহান মিয়া ও একই গ্রামের আওয়ামী লীগ নেতা কামাল মিয়ার মধ্যে বিরোধ চলে আসছিল। এরই জের ধরে চলতি মাসের ৯ ডিসেম্বর সকালে প্রতিপক্ষরা টেটাঁসহ দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে ঘুমন্ত মানুষের উপর হামলা চালায়। ভাঙচুর করা হয় বেশ কয়েকটি বাড়িঘর। এ সময় নগদ টাকা, স্বর্ণালঙ্কার, গোয়লের গরু-ছাগল ও গোলার ধানসহ মূলবান জিনিসপত্র লুটপাট করা হয়। সংঘর্ষের ফলে দুইপক্ষের কয়েক কোটি টাকার মালামালের ক্ষয়ক্ষতি হয়। পরে পুলিশ অভিযান চালিয়ে ৫ শতাধিক টেঁটা উদ্ধার করে। সংঘর্ষের ঘটনার পর থেকে গ্রামজুড়ে উত্তেজনা বিরাজ করছে। এরই প্রেক্ষিতে টেঁটাযুদ্ধ বন্ধের দাবিতে গ্রামের শান্তিপ্রিয় মানুষ মানববন্ধন করে । মানববন্ধনে কামাল মিয়া নামে এক গ্রামবাসী বলেন, চরাঞ্চলের সবচেয়ে শান্তি প্রিয় গ্রাম আলীপুর। কিন্তু এখানে আর শান্তি নেই। নজরপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক শাজাহান মিয়ার মূল ব্যবসা টেঁটাযুদ্ধ। নিজের লাভের জন্য গ্রামের লোকজনকে দুই ভাগে বিভক্ত করে টেঁটাযুদ্ধ বাধিয়ে রেখেছেন। আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক পদটাই তার পুঁজি। এই পদের ক্ষমতার বলে তিনি যা ইচ্ছা তাই করে বেড়াচ্ছেন। আমরা তার বিচার চাই।বুকে টেঁটা বিদ্ধ হয়ে আহত বহর উদ্দিন বলেন, ফজরের নামাজ আদায় করতে যাচ্ছিলাম। এসময় শাজাহানের লোকজন অহেতুক আমার বুকে  টেঁটা বিদ্ধ করে। আমরা টেঁটা যুদ্ধ চাই না। গ্রামে শান্তি চাই। এ অবস্থা থেকে পরিত্রাণ চাই। তাই টেঁটার হোতা শাজাহান মিয়ার বিচার দাবি করছি।

( বিডি প্রতিদিন/কালাম )

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

প্রকাশিত সংবাদ বিনা অনুমতিতে ব্যবহার করা বেআইনি,পাঠকের মতামত বিভাগে প্রচারিত মতামত একান্তই পাঠকের,তার জন্য কৃর্তপক্ষ দায়ী নয়।

Developed By H.m Farhad