শিরোনাম
বঙ্গবন্ধুর সমাধিতে শ্রদ্ধা নিবেদন করেছেন আসিয়ান বাংলাদেশ বিবিসি গোপালগঞ্জ মেলান্দহে দেবের ছড়া কারিগরি স্কুল এন্ড বি এম কলেজের অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ মেলান্দহে উপজেলা আওয়ামী লীগের বর্ধিত সভা অনুষ্ঠিত। আদর্শ মুসলমানের গুণ ১০টি। আজকের জুমার খুতবা ইনশাআল্লাহ। মেলান্দহ উপজেলার দেবের ছড়া কারিগরি স্কুল এন্ড বিএম কলেজে অনিয়ম ও দুর্নীতির অভিযোগ” ভিডিওসহ মিরপুর বিআরটিএ আনসার কমান্ডার হাসেম অপকর্মের হোতা তিতাসের বাতাকান্দি বাজারে  স্বর্ণের দোকানে ডাকাতি’র ঘটনায় গ্রেফতার ৫ সিলেটের গোলাপগঞ্জ লেবার সর্দার আজিজ হত্যা মামলার যাবজ্জীবন জামালপুরে ইসলামী আন্দোলনের বিক্ষোভ মিছিল  জামালপুরে আওয়ামী লীগের শান্তি শোভাযাত্রা অনুষ্ঠিত 

সিলেটে স্ট্যাপ,কার্টিজ পেপার ও কোর্ট ফি তীব্র সংকট

71Times / ৩৫৬৯ Time View
Update : মঙ্গলবার, ২৬ সেপ্টেম্বর, ২০২৩

সিলেটে স্ট্যাপ,কার্টিজ পেপার ও কোর্ট ফি তীব্র সংকট
আবুল কাশেম রুমন,সিলেট: সিলেটে স্ট্যাপ,কার্টিজ পেপার ও কোর্ট ফি তীব্র সংকট দেখা দিয়েছে। আদালত পাড়ায় এসব সংকট থাকায় ভোগান্তীর শিকার হতে হচ্ছে আইনজীবি, সাধারণ মানুষ ও ব্যবসায়ীরা। সরবরাহ না থাকায় অতিরিক্ত দামে কোর্ট-স্ট্যাম্প কিনতে হচ্ছে তাই কিছুটা বেশী দামে বিক্রি করতে হচ্ছে বলে জানান ব্যবসায়ীরা।
গত কয়েক মাস ধওে কোর্ট ফি-স্ট্যাম্পের সংকটে বেশি দামে কিনতে বাধ্য হচ্ছে বিচারপ্রার্থীরা। ১০ টাকার কোর্ট ফি ১৩ টাকা কিনতে হচ্ছে। ১শ টাকার নন জুডিশিয়াল স্ট্যাম্প ১শ’ ১৫ থেকে ১শ’ ২০ টাকায় কিনতে হচ্ছে। কোনো  কোনো স্থানে ১৩০ টাকাও বিক্রি হচ্ছে শোনা যায়। পাঁচশ টাকার জুডিশিয়াল স্ট্যাম্প ৬ শত থেকে ৭ শত টাকায় কিনতে হচ্ছে। ক্ষতিপূরণ মোকদ্দমা, পারিবারিক মোকদ্দমা, সাকসেশন মোকদ্দমায় ব্যাংকে ট্রেজারি চালানের মাধ্যমে টাকা জমা দিয়ে কোর্ট ফি কিনতে হয়। কিন্তু অনেক সময় ট্রেজারিতে টাকা জমা দিয়েও সময় মতো কোর্ট ফি মিলছে না। এতে করে মামলার কার্যক্রম বিলম্ব হচ্ছে।
এ ব্যাপারে স্ট্যাম্প ভেন্ডর সমিতি সিলেট জেলার সাংগঠনিক সম্পাদক সিরাজুল ইসলাম জানান, সিলেটে গত কয়েক মাস  থেকে কোর্ট ফি ও স্ট্যাম্পের সংকট চলছে। আমরা অনেকেই না পেয়ে কোর্ট ফি বিক্রি বন্ধ করে দিয়েছি। প্রয়োজনের তাগিদে অনেকেই বিভিন্ন ভাবে কোর্ট ফি সরবরাহ করছেন। আমরা বিক্রি করছিনা বিধায় কে কিভাবে বিক্রি করছে সে তথ্য আমাদের কাছে নেই। অনেকেই বলেছেন তারা ঢাকাসহ বিভিন্ন জায়গা থেকে কোর্ট ফি সংগ্রহ করছেন। তবে আমরা স্ট্যাম্প বিক্রি করছি। বাজারে সংকট থাকায় আমাদেরকে বেশী দামে স্ট্যাম্প সংগ্রহ করতে হচ্ছে। তাই বাধ্য হয়ে নামমাত্র লাভে আমরা স্ট্যাম্প বিক্রি করছি। আমরা স্ট্যাম্প প্রতি সর্বোচ্চ ৫/১০ টাকার বেশী মুনাফা করছিনা।


আপনার মতামত লিখুন :

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরো খবর